Mir cement
logo
  • ঢাকা রোববার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৪ আশ্বিন ১৪২৮

টাঙ্গাইল (উত্তর) প্রতিনিধি, আরটিভি নিউজ

  ২৮ জুলাই ২০২১, ১২:০০
আপডেট : ২৮ জুলাই ২০২১, ১২:০৮

ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে তিন চাকার যানবাহনের দৌরাত্ম্য

লকডাউনে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে তিন চাকার যানবাহনের দৌরাত্ম 
মহাসড়কে তিন চাকার যানবাহনের দৌরাত্ম 

ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে বেড়েছে তিন চাকার যানবাহন। গণপরিবহন বন্ধ থাকায় এসব যানবাহন দিয়েই গন্তব্যে যাচ্ছে লোকজন। সড়কের বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্ব, এলেঙ্গা, টাঙ্গাইল, মির্জাপুর, গোড়াইসহ বিভিন্ন বাসটার্মিনালে যাত্রীদের ভিড় লেগেই আছে। বুধবার (২৮ জুলাই) সকালে সরেজমিনে গিয়ে এই চিত্র দেখা যায়।

কঠোর বিধিনিষেধের ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে মির্জাপুর উপজেলার দেওহাটা এলাকায় মহাসড়কে রোদের অসহনীয় তাপের মধ্যে পরিবারের সদস্যদের নিয়ে ভ্যানে চেপে কর্মস্থলে যাচ্ছেন ঢাকার সাভার উপজেলার বাইপাইল এলাকায় একটি পোশাক কারখানার শ্রমিক সুফিয়া বেগম (৩২)। কোলে তার আড়াই বছরের শিশু।

সুফিয়া বেগম আরটিভি নিউজকে জানান, টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলার আনেহলা ইউনিয়নে তার বাড়ি। মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) সকাল সাড়ে ৯টার দিকে তারা বাড়ি থেকে ভ্যানে চেপে বাইপাইলের উদ্দেশে রওনা হয়েছেন। পথে শিশুটি কিছু খায়নি। সঙ্গে যোগ হয়েছে রোদের তাপ। এ গরম শিশুটির কাছে অসহনীয়। এজন্য সে বেশি কাঁদছে।

ভ্যান-চালক নজরুল ইসলাম আরটিভি নিউজকে জানান, ভ্যানে থাকা ৫ জন তার আত্মীয়। সঙ্গে এক বস্তা চাল ও জামা-কাপড় রয়েছে। তিনি বাইপাইলে একটি দোকানের মালামাল পরিবহনের কাজ করেন। ঈদের আগের দিন মঙ্গলবার (২০ জুলাই) পরিবারের সবাই বাড়ি গিয়েছিলেন। বিধিনিষেধের কারণে দোকান ও পোশাক কারখানা বন্ধ থাকার কথা থাকলেও তাদের জানানো হয়েছে কাজে যোগ দিতে হবে। এজন্য বাধ্য হয়ে তারা সবাই ভ্যানে ফিরছেন।

এদিকে সড়কের বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্ব, এলেঙ্গা, টাঙ্গাইল, মির্জাপুর, গোড়াইসহ বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে প্রচুর পরিমাণে সিএনজিচালিত অটোরিকশা, ব্যাটারিচালিত রিকশা ও ইজিবাইক এবং মোটরসাইকেল চলাচল করছে। এতে গাদাগাদি করে লোকজন চলাচল করায় উপেক্ষিত হচ্ছে স্বাস্থ্যবিধি। উপজেলা সদরের সঙ্গে সংযোগ থাকা এসব যানবাহন সড়কে বেশি চলছে।

দেওহাটা বাসস্ট্যান্ডের দক্ষিণ পাশে থাকা ইজিবাইক চালক মীর দেওহাটা গ্রামের নুর মোহাম্মদ বলেন, দেওহাটা থেকে গেড়ামারা-বহুরিয়া-চান্দুলিয়া হয়ে ধানতারা পর্যন্ত মানুষ প্রতিদিন চলাচল করছে। তারা মির্জাপুরসহ আশপাশের এলাকায় যাতায়াত করছেন। ভাড়া আগের মতো ৫০ টাকাই রয়েছে।

বহুরিয়া গ্রামের যাত্রী সখিচরণ পাল আরটিভি নিউজকে জানান, সকালে গাজীপুরের কালিয়াকৈরে মেয়ের বাড়িতে গিয়েছিলেন। যাওয়া-আসার সময় তিনি ভেঙে ভেঙে (যান পরিবর্তন) রিক্সা আর পায়ে হেঁটে চলেছেন।

এ বিষয়ে মির্জাপুরের গোড়াই হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আজিজুল হক আরটিভি নিউজকে বলেন, নির্ধারিত কিছু কারণ ছাড়া মহাসড়কে ওই সব যান চললে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে মামলা দেয়া হচ্ছে।

টাঙ্গাইলের সহকারী পুলিশ সুপার (মির্জাপুর সার্কেল) দীপঙ্কর কুমার ঘোষ আরটিভি নিউজকে বলেন, কঠোর বিধিনিষেধে সরকারি নিয়মানুযায়ী কিছু যান সড়ক-মহাসড়কে চলছে। নিয়মের বাইরে কেউ গেলে আইনানুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

জিএম

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS