Mir cement
logo
  • ঢাকা বুধবার, ০৪ আগস্ট ২০২১, ২০ শ্রাবণ ১৪২৮

শাহপরীর-দ্বীপে ঈদ আনন্দের সময় বিদ্যুৎস্পৃষ্টে নিহত ২  

শাহপরীর-দ্বীপে ঈদ আনন্দের সময় বিদ্যুৎস্পৃষ্টে নিহত ২  
প্রতীকী ছবি

কক্সবাজারের টেকনাফে ঈদ আনন্দের মধ্যে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে নারী ও পুরুষের মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২২ জুলাই) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে শাহপরীর-দ্বীপ দক্ষিণ পাড়া এলাকায় বিদ্যুতের প্রধান লাইনের তার ছিঁড়ে বাড়ির টিনের চালে পড়লে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন, টেকনাফ সদর ইউনিয়নের হাবিরছড়া এলাকার আব্দুল করিমের ছেলে কলিম উল্লাহ (১৮) ও স্থানীয় মোহাম্মদ হোসনের কন্যা রমিদা বেগম (২৮)। আহতরা হলেন, রমিদার ৫ বছরের শিশু নাইমা ও আব্দুল আমিনের কিশোরী কন্যা বকেয়া (১২)। বকেয়াকে আশঙ্কাজনক অবস্থা জেলা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, শাহপরীর দ্বীপ দক্ষিণপাড়া আব্দুল আমিন প্রকাশ বাইট্যার বাড়িতে সবাই ঈদ আনন্দে মেতে ছিলেন। অন্যান্য এলাকা থেকে ঈদ উপলক্ষে বেড়াতেও আসেন সেখানে।

হঠাৎ করে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে ওই এলাকার বিদ্যুতের প্রধান তার ছিঁড়ে বাইট্যার বাড়ির টিনের চালে পড়ে। এ সময় বিদ্যুৎস্পৃষ্টে হন পরিবার ও বেড়াতে আসা ৪ জন। ঘটনাস্থলে ওই ২ জন মারা যান। অপর ২ জনকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে প্রেরণ করে স্থানীয়রা। ঈদ উপলক্ষে কলিম উল্লাহ পাশের এলাকা থেকে বেড়াতে এসে মৃত্যুবরণ করেন।

পরিবারের লোকজন জানায়, বিদ্যুৎস্পৃষ্টের সময় বাড়িতে ৭ জন ছিল। ৩ জন বের হয়ে গেলেও বাকি ৪ জন বিদ্যুৎস্পৃষ্টে জড়িয়ে পড়েন। ঘটনাস্থলে ২ জন মারা গেলেও বাকি ২ জনকে চিকিৎসার জন্য প্রেরণ করা হয়।

টেকনাফ উপজেলা বিদ্যুতের এজিএম উদয়ন দাশ গুপ্ত আরটিভি নিউজকে জানান, বৃষ্টির কারণে গাছের ঢাল পড়লে তারটি ছিঁড়ে পড়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে। বর্তমান ওই এলাকায় বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন রয়েছে।

টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. টিটু চন্টদ্রশীল আরটিভি নিউজকে জানান, বিদ্যুৎস্পর্শে ১২ বছরের কিশোরী বকেয়ার অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাকে জেলা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

শাহপরীর-দ্বীপ পুলিশ ক্যাম্পের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা উপ পরিদর্শক আরটিভি নিউজকে বলেন, বিদ্যুতের প্রধান তার ছিঁড়ে টিনের চালের ওপর পড়াতে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত ২ জনের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

জিএম

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS