Mir cement
logo
  • ঢাকা শুক্রবার, ৩০ জুলাই ২০২১, ১৫ শ্রাবণ ১৪২৮

৩ লাখ মানুষের যাতায়াতের ভরসা নৌকা

৩ লাখ মানুষের যাতায়াতের ভরসা নৌকা
তায়াতের ভরসা নৌকা

সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া উপজেলার ৩ লাখ লোকের যাতায়াতের একমাত্র ভরসা নৌকা। বড়পাঙ্গাসী, উধুনিয় ও বাঙ্গালা ইউনিয়নসহ চলন-বিল অধ্যুষিত খান মরিচ ও দিলপাশা ইউনিয়নের মানুষ জীবনের ঝুঁকি নিয়ে দীর্ঘ দিন ধরে নৌকায় যাতায়াত করে থাকেন।

বর্ষা মৌসুম শুরু হওয়ায় প্রত্যন্ত চরাঞ্চলের রাস্তাঘাট, ফসলের মাঠ তলিয়ে যাওয়ায় ৫ ইউনিয়নে বসবাসকারী প্রায় ৩ লাখ মানুষের নৌকা যোগে যাতায়াত খুবই কষ্ট হয়ে দাঁড়িয়েছে। অন্যদিকে বন্যার পানিতে তলিয়ে গেছে গো-চরণ ভূমি। ফলে গো-খাদ্যের চরম সংকট ও দিয়েছে। তবে বন্যার পানি আসায় মাঠে ফসল চাষ করতে না পারলেও চাষীরা নিজ নিজ জায়গায় বাদাই জাল, আড়ঁই জাল, বেড় জাল দিয়ে নানা প্রজাতির দেশীয় মাছ আহরণ করে জীবিকা নির্বাহ করে থাকেন। আবার পানি নেমে গেলে আবারও চাষাবাদ শুরু করেন।

উধুনিয়া গ্রামের নৌকার মাঝি ইউনুস মোলা আরটিভি নিউজকে বলেন, দীর্ঘ ৬ বছর ধরে নৌকা চালাই। বন্যার পানি আসলে এ অঞ্চলে মানুষের নৌকায় যাতায়াত শুরু হয়ে যায়। মোহনপুর ঘাট থেকে উধুনিয়া ঘাট পর্যন্ত জন প্রতি ২০ টাকা ভাড়া হিসেবে যাত্রী পারাপার করা হয়। এখন পানি তেমন একটা হয়নি। পানি যখন আরও বৃদ্ধি বাড়বে তখন প্রতি দিন ১ হাজার টাকায় আয় করা সম্ভব হবে। আবার বন্যার পানি যখন চলে যায় তখন আমরা কৃষি কাজ করি।

এ বিষয়ে উধুনিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল জলিল মিয়া আরটিভি নিউজকে বলেন, উল্লাপাড়া উপজেলার চলন-বিল অধ্যুষিত এবং প্রত্যন্ত অঞ্চল হিসেবে পরিচিত উধুনিয়া ইউনিয়ন। উধুনিয়া বাজার থেকে বাংলাপাড়া পর্যন্ত প্রায় সাড়ে ৩ কিলোমিটার রাস্তা অবহেলিত থাকার কারণে বন্যার পানি আশা মাত্র রাস্তা তলিয়ে যায়। আর বন্যার সময় এলাকার মানুষের চলাচলের একমাত্র মাধ্যম নৌকা। বিশেষ করে নৌকায় মালামাল ভাড়া দ্বিগুণ বেড়ে যায়। জীবনের ঝুঁকি নিয়ে সাধারণ জনগণ নৌকায় যাতায়াত করে থাকে।

জিএম

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS