Mir cement
logo
  • ঢাকা রোববার, ০৯ মে ২০২১, ২৬ বৈশাখ ১৪২৮

মায়ের মরদেহ দেখতে গিয়ে স্বামী-সন্তান হারালেন আদুরি

মায়ের মরদেহ দেখতে গিয়ে স্বামী-সন্তান হারালেন আদুরি
মায়ের মরদেহ দেখতে গিয়ে স্বামী-সন্তান হারালেন আদুরি

মাদারীপুরের শিবচরে পদ্মা নদীতে বালু বোঝাই বাল্কহেড ও স্পিড বোটের সংঘর্ষের ঘটনায় স্বামী-সন্তানকে হারিয়েছে আদুরি বেগম। তিনি দোতরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে বসে কাঁদছেন কিন্তু তাকে সান্ত্বনা দেয়ার কেউ নেই।

সোমবার (৩ মে) শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌপথে স্পিডবোট দুর্ঘটনায় তার স্বামী আরজু মিয়া (৪০) ও দেড় বছর বয়সী ছেলে ইয়ামিন প্রাণ হারিয়েছেন।

অসহায় আদুরি বগমের, বাড়ি ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গা উপজেলার মাইগ্রো গ্রামে। স্বামী-সন্তান নিয়ে থাকতেন ঢাকার হাসনাবাদে।

জানা গেছে, রোববার (২ মে) রাতে আদুরির মা মনোয়ারা বেগম মারা যান। তিনি মায়ের মরদেহ দেখতে স্বামী সন্তান নিয়ে গ্রামে যাচ্ছিলেন। ভোরে মুন্সিগঞ্জের শিমুলিয়া থেকে ৩০ থেকে ৩৫ জন যাত্রী নিয়ে মাদারীপুরের শিবচরের বাংলাবাজারের দিকে আসছিল স্পিডবোটটি। ঘাটের কাছাকাছি এলে নোঙর করা বালুবোঝাই একটি বাল্কহেডে ধাক্কা দিয়ে স্পিডবোটটি উল্টে যায়। এ সময় ঘটনাস্থলেই ২৬ যাত্রী প্রাণ হারান।

পরে সকাল ১০টার দিকে আদুরি বেগম স্বামী-সন্তানের খোঁজে ছুটে যান নদীর তীরে। সেখানে কাউকে না পেয়ে ছুটে আসেন দোতরা সরকারি প্রাথমিক স্কুল মাঠে। আসার পর জেনে যান স্বামী আর বুকের মানিক আর নেই। এ সময় সেখানে হাজির হন আদুরির দুই চাচা ও ফুফু। তারা মরদেহের সারি থেকে তার স্বামী ও সন্তানকে শনাক্ত করেন।

মাদারীপুরের জেলা প্রশাসক রহিমা খাতুন বলেন, ৬ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন হয়েছে। তিন কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিল করার কথা বলে হয়েছে। প্রতিবেদন পাওয়ার পর দায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

জিএম

RTV Drama
RTVPLUS