Mir cement
logo
  • ঢাকা শনিবার, ১৫ মে ২০২১, ১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮

পটুয়াখালী প্রতিনিধি, আরটিভি নিউজ

  ১৭ এপ্রিল ২০২১, ১৭:৪৯
আপডেট : ১৭ এপ্রিল ২০২১, ১৮:১৩

নারীকে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন, গ্রেপ্তার ৯

Torture of women in medieval style, arrest 9
নারীকে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন, গ্রেপ্তার ৯

পটুয়াখালীর বাউফলের চন্দ্রদ্বীপ ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনকে কেন্দ্র করে আকলিমা আক্তার নামের এক নারীকে মধ্যযুগীয় কায়দায় মারধরের ঘটনায় ৯ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

শনিবার (১৭ এপ্রিল) গ্রেপ্তারকৃতদের আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। এর আগে ভুক্তভোগী ওই নারীকে মারধরের দৃশ্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে ভাইরাল হওয়া ভিডিও থেকে আসামিদের শনাক্ত করা হয়।

জানা গেছে, শুক্রবার (১৬ এপ্রিল) রাতে বাউফল উপজেলার নাজিরপুর এলাকা থেকে ঘটনার প্রধান অভিযুক্ত শাকিল হোসেন ওরফে শাকিল ডাক্তার (৪০)কে গ্রেপ্তার করা হয় এবং পরবর্তীতে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে আরও ৮ আসামিকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। অন্যদিকে নির্যাতিতা আকলিমা আক্তার বর্তমানে বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

শনিবার (১৭ এপ্রিল) বেলা ১২টার দিকে নিজ কার্যালয়ে প্রেস ব্রিফিংয়ে পটুয়াখালীর পুলিশ সুপার মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ পিপিএম এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, চন্দ্রদ্বীপ ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ইউপি সদস্য প্রার্থী মো. কামাল হোসেন ও মো. বাবুল হাওলাদারের সমর্থনের মধ্যে গত ১৫ এপ্রিল সকাল সাড়ে ১০টার দিকে সংঘর্ষ হয় এবং ওই মহিলাকে মারধর করে। যা পরের দিন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়। এ বিষয়ে আবদুস সালাম হাওলাদার বাদী হয়ে ১৮ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরও কয়েকজনের বিরুদ্ধে বাউফল থানায় একটি মামলা দায়ের করে।

এ প্রেসব্রিফিংয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (তদন্ত ও অপরাধ) মো. মাহাফুজুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল), মো. মুকিত হাসান খান, প্রেসক্লাবের সভাপতি স্বপন ব্যানার্জী, সাধারণ সম্পাদক জালাল আহমেদসহ বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকগণ উপস্থিত ছিলেন।

জিএম/পি

RTV Drama
RTVPLUS