logo
  • ঢাকা বুধবার, ১৪ এপ্রিল ২০২১, ১ বৈশাখ ১৪২৮

জেলেদের মাঝে ভ্যান গাড়ি বিতরণের পর জানা গেল কেউ জেলে নন

After distributing the van among the fishermen, it was found out that no one was a fisherman
জেলেদের মাঝে ভ্যান গাড়ি বিতরণের পর জানা গেল কেউ জেলে নন

চাঁদপুরে নিবন্ধিত জেলেদের মাঝে ভ্যান গাড়ি বিতরণের পর জানা গেল তারা কেউ জেলে নন।

বুধবার (৭ এপ্রিল) চাঁদপুরে জাটকা সংরক্ষণ সপ্তাহ উপলক্ষে নিবন্ধিত জেলেদের মাঝে বিকল্প আয় বর্ধনমূলক কার্যক্রমের অংশ হিসেবে উপকরণ বিতরণ কালে এ ঘটনা ঘটে।

এদিকে কী কারণে অপেশাদারদের হাতে জেলেদের উপকরণ বিতরণ হয়েছে বিষয়টি তদন্ত করে প্রতিবেদন দেয়ার জন্য ৩ সদস্যবিশিষ্ট কমিটি গঠন করে দিয়েছেন জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ। তদন্ত কমিটির আহ্বায়ক চাঁদপুর সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সানজিদা শাহনাজ ও সদস্য সচিব নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইমরান মাহমুদ ডালিম।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, চাঁদপুর জেলা প্রশাসন ও জেলা মৎস্য বিভাগ পক্ষ থেকে জেলেদের মাঝে উপকরণ বিতরণের জন্য জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে নিবন্ধিত জেলেদের মাঝে বিতরণের জন্য ২০টি ভ্যান গাড়ি আনা হয়েছিলে। করোনা পরিস্থিতির কারণে নির্দিষ্ট সময়ে বেশ কয়েকটি ভ্যান গাড়ি বিতরণও করেন জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ। এসময় চাঁদপুর পৌরসভার মেয়র মো. জিল্লুর রহমান জুয়েল, চাঁদপুর জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো. আসাদুল বাকী বিতরণ কার্যক্রমে উপস্থিত ছিলেন। অপেশাদার জেলেদের মাঝে ভ্যান গাড়ি বিতরণে উপস্থিত সবাই অবাক হন। জেলা মৎস্য বিভাগের এমন কাণ্ডে দায়িত্বশীলতার অভাব রয়েছে বুঝতে পেরে জেলা প্রশাসক ভ্যান গাড়ি বিতরণ বন্ধ এবং যেগুলো বিতরণ হয়েছে সেগুলো ফেরত আনার তাৎক্ষণিক নির্দেশনা প্রদান করেন। বিতরণ করা ভ্যান গাড়ি পরে ফেরত আনা হয়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, যেসব ব্যক্তিদের জেলে হিসেবে আনা হয়েছে ভ্যান গাড়ি দেয়ার জন্য। তারা কেউ মৎস্য আড়তের কর্মচারী, কেউ সমিতির কর্মচারী। এর আগেও প্রকৃত জেলেরা সরকারি সুবিধা থেকে বাদ পড়েছে । জেলে তালিকা তৈরি করার সময় স্থানীয় কিছু জনপ্রতিনিধি দুর্নীতি ও অনিয়ম করে এমনটি করে আসছেন ।

চাঁদপুর জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো. আসাদুল বাকি বলেন, নিবন্ধিত জেলেদের এই তালিকাটি আগের। যার কারণে অপেশাদার লোক থাকতে পারে। সব ভুল আমার। তালিকাটি ঠিক করা হবে। এভাবে বিগত দিনেও সঠিক তদন্ত না থাকার কারণে প্রকৃত জেলেরা বাদ পড়ে আসছে সরকারি সুবিধা থেকে।

এই বিষয়ে জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ বলেন, বিষয়টি সকলকে অবাক করার মতোই। কী কারণে এমনটি হয়েছে তা তদন্ত করে দেখা হবে।

জিএম

RTV Drama
RTVPLUS