logo
  • ঢাকা শুক্রবার, ১৬ এপ্রিল ২০২১, ৩ বৈশাখ ১৪২৮

কুলিয়ারচরে ৫০০ জনের বিরুদ্ধে মামলা

Case against 500 people in Kuliyarchar
ফাইল ছবি

কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচরে পুলিশ-হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হক সমর্থকদের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ায় ৭ পুলিশ সদস্য আহতের ঘটনায় মামলা হয়েছে। আজ রোববার (৪ মার্চ) দুপুরে কুলিয়ারচর থানার উপ-পরিদর্শক সাদ্দাম হোসেন মোল্লা বাদী হয়ে ৩৩ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতনামা আরও ৫'শ জনকে আসামি করা হয়েছে। মামলায় প্রধান আসামি করা হয়েছে পৌর শহরের বড়খারচর গ্রামের মজনু মিয়ার ছেলে রিমন মিয়া নামে এক যুবককে।

গতকাল শনিবার রাত দশটার দিকে পুলিশের সঙ্গে মামুনুল হক সমর্থক এবং নেতাকর্মীদের সংঘর্ষ এবং ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এতে পুলিশ-সাংবাদিকসহ আহত ৮জন আহত হয়েছেন। এছাড়াও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ ৫ রাউন্ড রাবার বুলেট নিক্ষেপ করেন।

নারায়ণগঞ্জের একটি রিসোর্টে হেফাজত নেতা মাওলানা মামুনুল হককে আটকের খবরে কুলিয়ারচরে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করে হেফাজত নেতাকর্মীসহ মামুনল হকের সমর্থকরা। পরে মিছিলটি বাজার প্রদক্ষিন করে বড়খারচরে যাবার পথে থানা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে তারা। ফলে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ এবং ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এসময় উপজেলা নির্বাহী অফিসারের বাসা ও ভূমি অফিসসহ একাধিক স্থাপনা লক্ষ্য করে ইটপাটকেল ছুঁড়া হয়। ফলে শহরের চার দিকে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। পরে এলাকার পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ৫ রাউন্ড রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে পুলিশ।

কুলিয়ারচর থানার অফিসার ইনচার্জ একেএম সুলতান মাহমুদ জানান, বিক্ষোভকারীরা থানা অতিক্রম যাবার পথে পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে। একই সঙ্গে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের বাসা এবং ভূমি অফিসসহ বেশ কয়েকটি স্থাপনায় হামলা করে তারা।

এমআই

RTV Drama
RTVPLUS