Mir cement
logo
  • ঢাকা বুধবার, ১২ মে ২০২১, ২৯ বৈশাখ ১৪২৮

লালমনিরহাট প্রতিনিধি, আরটিভি নিউজ

  ২৮ মার্চ ২০২১, ২১:২২
আপডেট : ২৮ মার্চ ২০২১, ২১:৪০

প্রেম করে বিয়ে, যৌতুকের জন্য পায়ের রগ কাটলেন স্বামী 

After love and marriage, the husband cut his leg for dowry
প্রতীকী ছবি

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় যৌতুকের টাকা দিতে না পারায় এক গৃহবধূর পায়ের রগ কেটে দিয়েছে স্বামী ও শ্বশুর বাড়ির লোকজন।

রোববার (২৮ মার্চ) থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন ওই গৃহবধূর পরিবার। ভুক্তভোগী ওই গৃহবধূ হাতীবান্ধা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

এর আগে শনিবার (২৭ মার্চ) রাতে উপজেলার টংভাঙ্গা ইউপির পশ্চিমবেজ গ্রাম এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে। হাতীবান্ধা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এরশাদুল আলম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আহত গৃহবধূ দিলরুবা আক্তার টুম্পা উপজেলার সিংগীমারী ইউনিয়নের দক্ষিণ গড্ডিমারী গ্রামের মৃত মোফাজ উদ্দিনের মেয়ে।

অভিযুক্তরা হলেন, হাতীবান্ধা উপজেলার টংভাঙ্গা ইউনিয়নের পশ্চিমবেজ গ্রামের মোখলেছার রহমানের ছেলে ও গৃহবধূ দিলরুবার স্বামী অছিউর রহমান প্রাণ (২৭), ভাই মুরাদ হোসেন মন ও মা মালতি লতা।

পরিবার সূত্রে জানা গেছে, ৫ বছর আগে ভালোবেসে তারা বিয়ে করেন। প্রথম দিকে প্রাণের মা মেনে না নিলেও সন্তান হওয়ার পর উভয় পরিবার তাদের মেনে নেয়। পরে বিয়েতে কিছু না পাওয়ায় টুম্পাকে বাবার বাড়িতে থেকে টাকা আনতে চাপ প্রয়োগ করেন স্বামী অছিউর। টুম্পা বাবার বাড়ি থেকে টাকা এনে দিতে না পারায় নির্যাতন শুরু করেন তিনি। এই বিষয়ে নিয়ে বেশ কয়েকবার স্থানীয়ভাবে সালিস বৈঠকও হয়। তারপরেও কোনো সমাধান পাওয়া যায়নি। প্রতিনিয়ত চলতে থাকে স্বামী-শাশুড়ির নির্যাতন।

হঠাৎ করে শনিবার (২৭ মার্চ) সন্ধ্যায় ২ লাখ টাকার জন্য টুম্পাকে মারধর করেন স্বামী অছিউর। এসময় যোগ দেন দেবর ও শাশুড়ি। একপর্যায়ে ভাই ও মায়ের সহযোগিতায় স্বামী অছিউর ধারাল ছুড়ি দিয়ে টুম্পার পায়ের রগ কেটে দেন। পরে পরিবারের লোকজন সংবাদ পেয়ে পুলিশের সহযোগিতায় টুম্পাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

এই বিষয়ে হাতীবান্ধা থানার উপপরিদর্শক (এসআই) ইব্রাহিম বলেন, আমরা সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে যাই। এ সময় গৃহবধূকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করানো হয়েছে। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

জিএম

RTV Drama
RTVPLUS