logo
  • ঢাকা রোববার, ১১ এপ্রিল ২০২১, ২৮ চৈত্র ১৪২৭

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি, আরটিভি নিউজ

  ০৭ মার্চ ২০২১, ২৩:০১
আপডেট : ০৭ মার্চ ২০২১, ২৩:১৯

ধর্ষণের পর গৃহবধূকে ইয়াবা দিয়ে ধরিয়ে দিয়েছিল উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি

After the rape, the housewife was caught with yaba by the president of the upazila BCL!
ধর্ষণের পর গৃহবধূকে ইয়াবা দিয়ে ধরিয়ে দিয়েছিল উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি!

চট্টগ্রামে ধর্ষণের পর এক গৃহবধূকে ইয়াবা দিয়ে ফাঁসানোর অভিযোগে উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আরিফুর রহমান রাসেল ও ৬ পুলিশ সদস্যসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা দায়ের করা হয়েছে। আজ রোববার (৭ মার্চ) দুপুরে চট্টগ্রামের জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শহীদুল্লাহ কায়সারের আদালতে এ মামলা দায়ের করেন ওই ভুক্তভোগী নারী।

মামলার আসামিরা হলেন, হাটহাজারী উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মো. আরিফুর রহমান রাসেল (৩২), এসআই মো. সেলিম মিয়া, হাটহাজারী থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই মুকিব হাসান, এসআই কফিল উদ্দীন, কনস্টেবল মো. সাইফুল, কনস্টেবল মো. পারভেজ, নারী কনস্টেবল বৈশাখী রহমান, পুলিশের সোর্স মো. রিংকু সুলতান (২৫), মো. হেলাল (৩৫) ও মো. হেলাল উদ্দীন।

বাদীর আইনজীবী মোহাম্মদ ইলিয়াছ মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আদালত অভিযোগ আমলে নিয়ে বাদীর বক্তব্য গ্রহণ করেছেন।

মামলার অভিযোগ বিষয়ে তিনি জানান, স্বামীর সাথে ঝগড়া, পারিবারিক অশান্তি ও সন্তানদের সাথে দেখা করার সুযোগ না পেয়ে প্রতিকারের আশায় হাটহাজারী উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি আরিফুর রহমান রাসেলের কাছে যান ভুক্তভোগী নারী। এরপর রাসেল বিষয়টি সমাধানের কথা দিয়ে ওই নারীকে বেশ কয়েকবার ধর্ষণ করেন। পরে উপজেলা সদরের একটি গেস্ট হাউসে নিয়ে ধর্ষণের পর পুলিশের মাধ্যমে ইয়াবা দিয়ে ফাঁসিয়ে দেন ওই নারীকে। সেই মামলায় পাঁচ মাস কারাগারে ছিলেন তিনি। এ ঘটনায় কারাগার থেকে মুক্তি পেয়ে আজ রোববার আদালতে মামলা দায়ের করেন ভুক্তভোগী নারী।

জিএম

RTV Drama
RTVPLUS