logo
  • ঢাকা শনিবার, ১৭ এপ্রিল ২০২১, ৪ বৈশাখ ১৪২৮

টানা ৩৩ বছর অপরাজেয় যে জনপ্রতিনিধি

টানা ৩৩ বছর অপরাজেয় যে জনপ্রতিনিধি
ফাইল ছবি

যশোরের কেশবপুরে টানা সপ্তমবার জনপ্রতিনিধি হলেন মশিয়ার রহমান। রোববার অনুষ্ঠিত কেশবপুর পৌরসভা নির্বাচনে দুই নম্বর ওয়ার্ড থেকে কাউন্সিলর পদে পানির বোতল প্রতীক নিয়ে জয়লাভ করেন তিনি। মশিয়ার রহমান উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক।

পেশায় মশিয়ার রহমান ব্যবসায়ী। তিনি উপজেলা পাট ব্যবসায়ী সংগঠনের সভাপতি। বিএনপির প্রার্থী হয়েও প্রত্যেক নির্বাচনে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের বিভিন্ন প্রার্থী তার সাথে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করলেও একনাগাড়ে ৩৩ বছরের ধরে তিনি তার জায়গা ধরে রাখতে সক্ষম হয়েছেন।

মশিয়ার রহমান পৌরসভার ২ নম্বর ওয়ার্ডের ভোগতীনরেন্দ্রপুর গ্রামের মোবারক আলীর ছেলে। তার শিক্ষাগত যোগ্যতা এসএসসি। ২৮ বছর বয়সে ১৯৮৮ সালে কেশবপুর ৬ নম্বর সদর ইউনিয়নের এক নম্বর ওয়ার্ড থেকে ইউপি সদস্য পদে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করে প্রথমবারেই নির্বাচিত হন। সেসময় তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন আওয়ামী লীগের আমজাদ সানা।

তরুণ বয়সেই জনপ্রতিনিধি হয়ে জনসাধারণের আস্থা অর্জন করতে সক্ষম হন তিনি। তার সমকক্ষ কোনও প্রার্থী না থাকায় কেশবপুর সদর ইউনিয়নে ১৯৯১ ও ৯৬ সালেও তিনি ইউপি সদস্য নির্বাচিত হন। ১৯৯৮ সালে কেশবপুর ইউনিয়ন পরিষদ পৌরসভায় রূপান্তরিত হয় এবং তিনি পৌর প্রশাসকের অধীনে সিলেক্টেড কাউন্সিলর হন।

২০০৫ সালে কেশবপুর পৌরসভার প্রথম নির্বাচনে তিনি পুনরায় কাউন্সিলর নির্বাচিত হন। তার প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন সে সময়কার পৌর আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক আব্দুস সোবহান গাজী। এরই ধারাবাহিকতায় ২০১০ ও ২০১৫ সালেও কাউন্সিলর নির্বাচিত হন তিনি। এ দু’ নির্বাচনে তার প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন আব্দুস সোবহান গাজীর ছেলে বর্তমান পৌর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবু শাহীন।

সদ্য শেষ হওয়া কেশবপুর পৌরসভা নির্বাচনে পানির বোতল প্রতীকে মশিয়ার রহমান এক হাজার ২৬৩ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ওই ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি উটপাখি প্রতীকের হাবিবুর রহমান পেয়েছেন ৯৩২ ভোট। এই ওয়ার্ডের বর্তমান ভোটার তিন হাজার ৫৯।

টানা সপ্তমবার বিজয়ী হওয়ার মূলমন্ত্র জানতে চাইলে মশিয়ার রহমান বলেন, জনগণের সঙ্গে আমার যে সামাজিক সম্পর্ক তাদের প্রতি যে ভালোবাসা এটা তার বহিঃপ্রকাশ। ভোটারদের সঙ্গে আমার যে আত্মার মিল এটার একটা ঢেউ সবসময়ই থাকে। আমার ওয়ার্ডে সকল কাজে দলীয় বিবেচনা করি না। জনগণের সেবা কর্তব্য মনে করে কাজ করে আসার কারণে আমি বার বার নির্বাচিত হয়ে আসছি।

এসএস

RTV Drama
RTVPLUS