logo
  • ঢাকা শনিবার, ১৭ এপ্রিল ২০২১, ৪ বৈশাখ ১৪২৮

‘জাতির কল্যাণে নিরলস কাজ করে গেছেন আবুল মকসুদ’

মকসুদ×প্রতিনিধি×জীবনী×পদচারণা×মানুষ×মৃত্যু×পোশাক×লেখক×
ছবি আরটিভি নিউজ

সৈয়দ আবুল মকসুদ লেখার মধ্যেই নিজেকে সীমিত রাখেননি। দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে নির্যাতিত-নিপীড়িত মানুষের কাছে ছুটে গেছেন। একজন নীতিবান ও আদর্শিক মানুষ ছিলেন সৈয়দ আবুল মকসুদ। সকল লোভ-লালসার ঊর্ধ্বে থেকে তিনি জাতির কল্যাণে নিরলসভাবে কাজ করে গেছেন। এতে প্রাপ্তির কোনও প্রত্যাশা ছিল না তার।

আজ শুক্রবার দুপুরে মানিকগঞ্জ প্রেসক্লাব মিলনায়তনে তার স্মরণে শোকসভায় বক্তারা এসব কথা বলেন। মানিকগঞ্জের সন্তান এই গুণী মানুষকে নিয়ে স্মরণ সভার আয়োজন করে মানিকগঞ্জ প্রেসক্লাব।

প্রেসক্লাবের সভাপতি গোলাম ছারোয়ারের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক বিপ্লব চক্রবর্তীর সঞ্চালনায় শোকসভায় বক্তব্য দেন প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম বিশ্বাস, জেলা সাংবাদিক সমিতির সভাপতি মানবেন্দ্র চক্রবর্তী, সাধারণ সম্পাদক শাজাহান বিশ্বাস, দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিনের জেলা প্রতিনিধি কাবুল উদ্দিন খান এবং প্রথম আলোর জেলা প্রতিনিধি আব্দুল মোমিন।

তারা বলেন, সৈয়দ আবুল মকসুদ লেখক হিসেবে প্রতিষ্ঠিত। জীবনী, প্রবন্ধ, গবেষণা, ভ্রমণকাহিনী, কবিতা—সাহিত্যের এমন কোনও শাখা নেই যেখানে তার স্বাচ্ছন্দ্য পদচারণ ছিল না। যুক্তরাষ্ট্র ইরাকে হামলা চালিয়ে নিরীহ মানুষ হত্যার প্রতিবাদে ব্যতিক্রম প্রতিবাদ জানান। সেলাই ছাড়া সাদা কাপড় পরিধান করতেন এবং মৃত্যুর আগ-পর্যন্ত তিনি সেই পোশাক পরিধান করেছেন।

পরিবেশ, নিরাপদ সড়ক, ধর্মীয় সংখ্যালঘু কিংবা ক্ষুদ্র জাতিসত্তার মানুষের ন্যায্য দাবিতে স্বোচ্ছার ছিলেন তিনি। কখনও কখনও তিনি একাই অন্যায়-অবিচারের বিরুদ্ধে আন্দোলন করেন।

নিরাপদ সড়ক নিয়ে তিনি আন্দোলন করেন। এর ধারাবাহিকতায় পরবর্তীতে সরকার নিরাপদ সড়ক আইন পাশ করে।

উল্লেখ্য, মানিকগঞ্জের হরিরামপুর উপজেলার এলাচীপুর গ্রামে ছিল সৈয়দ আবুল মকসুদের পৈত্রিক ভিটা। পরবর্তীতে যমুনার ভাঙনে হরিরামপুরের কৌড়ি হুগলাকান্দি গ্রামে পৈত্রিক ভিটা গড়ে ওঠে। এই গ্রামেই জাদুঘর ও একটি পাঠাগার গড়ার স্বপ্ন ছিল তার। ইতোমধ্যে গ্রামের ৬০ শতক জমিতে তা নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছিলেন তিনি। জমি ভরাট ও রাস্তা নির্মাণ কাজও শেষ হয়েছে। তবে জাদুঘর ও পাঠাগার গড়ার আগেই পৃথিবী থেকে বিদায় নিলেন তিনি।

বক্তারা তার এই অসমাপ্ত কাজ বাস্তবায়ন করতে রাষ্ট্রের কাছে দাবি জানান।

জেবি

RTV Drama
RTVPLUS