logo
  • ঢাকা সোমবার, ০৮ মার্চ ২০২১, ২৩ ফাল্গুন ১৪২৭

বাংলাদেশ-ভারতের আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত হচ্ছে সীমিত আকারে

মাতৃভাষা×বেনাপোল×ভারত×বাংলাদেশ×অংশগ্রহণ×শুভেচ্ছা×বেদি×বাংলাভাষা×
ফাইল ছবি

মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে দু’দেশের আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের যৌথ অনুষ্ঠান পালিত হচ্ছে সীমিত আকারে।

প্রতিবছর আন্তর্জাতিক মৃাতৃভাষা দিবসটি বেনাপোল চেকপোস্টের নোম্যান্সল্যান্ডে পালিত হয় যৌথভাবে।

হাজার হাজার বাংলাভাষা প্রেমী মানুষ প্রাণের আবেগে ছুটি আসে মাতৃভাষা দিবস উদযাপনে।

ছোট আকারে এবার নোম্যান্সল্যান্ডে নির্মাণ করা হয়েছে অস্থায়ী শহীদবেদী।

দুই দেশের রাজনৈতিক, সামাজিক নেতৃবৃন্দ অস্থায়ী শহীদ বেদিতে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানবেন।

তবে এবার বাংলাদেশ অংশে কোনও অনুষ্ঠান হচ্ছে না। বাংলাদেশে থেকে ১০০ জন প্রতিনিধি অংশগ্রহণ করবেন ভারতীয় একুশের অনুষ্ঠানে। ২০০২ সাল থেকে বেনাপোল চেকপোস্টের জিরো পয়েন্টে দুই দেশ যৌথভাবে উদযাপন করে আসছে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস। ভারতের পশ্চিমবঙ্গের খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক ও বাংলাদেশের যশোর-১ আসনের সংসদ সদস্য শেখ আফিল উদ্দিন প্রধান অতিথি হিসেবে নেতৃত্ব দিয়ে আসছেন আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে।

কিন্তু এবারের ২১ ফেব্রুয়ারি মাতৃভাষা দিবসে বেনাপোলে চেকপোস্টের নোম্যান্সল্যান্ডে বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তে এই দৃশ্য দেখা যাবে না।

চলতি বছর এবারের ২১ ফেব্রুয়ারি মাতৃভাষা দিবস অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন ভারতের পশ্চিমবঙ্গের খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক পৌর মেয়র শ্রী শংকর আঢ্য এবং বাংলাদেশের স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় (এলজিআরডি) মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য এমপি, যশোর-১ আসনের সংসদ সদস্য শেখ আফিল উদ্দিন।

জেবি

RTV Drama
RTVPLUS