logo
  • ঢাকা শুক্রবার, ০৫ মার্চ ২০২১, ২০ ফাল্গুন ১৪২৭

আরটিভি নিউজ

  ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১৮:৩৭
আপডেট : ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১৮:৫৯

বন্ধুর প্রেমিকা ও বান্ধবীকে পালাক্রমে ধর্ষণ করলো ছয়জন

প্রেম×ফাঁদ×কিশোরী×হোসেন×ফেসবুকে×রিফাত×আদনান×পরিচয়×
প্রতিকী ছবি

মুন্সিগঞ্জের লৌহজংয়ে প্রেমের ফাঁদে ফেলে দুই কিশোরীকে গণধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এ ঘটনায় আজ বৃহস্পতিবার ভোরে ছয় যুবককে গ্রেপ্তার করেছে লৌহজং থানা পুলিশ।

আটক ছয় যুবক হলেন উপজেলার মেদেনি মণ্ডল ইউপির উত্তর যশলদিয়া গ্রামের মাসুদ শেখের ছেলে অমায়িক, একই গ্রামের রহিম শেখের ছেলে রনি শেখ, শরিয়তপুরের জাজিরা উপজেলার সোবাহানদি মাদবরকান্দির চাঁদ মিয়া শেখের ছেলে জীবন শেখ, শ্রীনগর উপজেলার ষোলঘর গ্রামের মো. মাসুদ আলী শেখের ছেলে আদনান, মৃত শাকিব হোসেনের ছেলে কাইফি মীর ও মেদেনী মণ্ডল ইউনিয়নের যশলদিয়া গ্রামের আবদুস সালাম বেপারীর ছেলে রবিন।

জানা যায়, ঢাকার কেরাণীগঞ্জের ষষ্ঠ শ্রেণি ও দশম শ্রেণির দুই কিশোরীর ফেসবুকে পরিচয় হয় আদনান ও রিফাতের সঙ্গে। কিছুদিন পর তারা প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন। পরে গেলো মঙ্গলবার রাত ১০টার দিকে প্রেমিক ওই কিশোরী দুজনকে শিমুলিয়া ঘাটে ঘুরতে নিয়ে আসেন। ঘাটে ঘুরানো শেষে গভীর রাতে যশলদিয়া পুনর্বাসন কেন্দ্রের নির্জন একটি ঘরে নিয়ে গিয়ে দলবদ্ধভাবে একাধিকবার ধর্ষণ করে। এরপর বুধবার কিশোরী দুটি কেরাণীগঞ্জের তাদের বাসায় চলে যান।

কিশোরির পরিবার দক্ষিণ কেরাণীগঞ্জ থানায় বিষয়টি অবহিত করেন। পরে কেরাণীগঞ্জ থানা পুলিশ লৌহজং থানা পুলিশকে জানালে গত বুধবার রাত ৯টা থেকে অভিযান চালিয়ে বৃহস্পতিবার ভোরে ছয়জন যুবককে গ্রেপ্তার করা হয়।

লৌহজং থানার ওসি মো. আলমগীর হোসাইন জানান, ঘটনার বিবরণ পেয়ে বুধবার রাত থেকে সারারাত অভিযান চালিয়ে বৃহস্পতিবার ভোরে ছয় যুবককে আটক করা হয়। এ বিষয়ে লৌহজং থানায় সাতজনের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

জেবি

RTV Drama
RTVPLUS