logo
  • ঢাকা শুক্রবার, ০৫ মার্চ ২০২১, ২০ ফাল্গুন ১৪২৭

জোর করে দেহব্যবসা করানোর অভিযোগ নারী কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে

জোর করে দেহব্যবসা করানোর অভিযোগ নারী কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে
ফাইল ছবি

গাজীপুরে এক বিউটি পার্লার কর্মীকে (১৬) আটকে রেখে জোরপূর্বক দেহব্যবসা করানোর অভিযোগ উঠেছে এক সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে। ওই বিউটি পার্লার কর্মী নারী কাউন্সিলরসহ দুজনকে আসামি করে থানায় মামলা করেছেন।

আজ মঙ্গলবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) মানবপাচার প্রতিরোধ ও দমন আইনে বাসন থানায় মামলাটি করেন তিনি।

মামলায় অভিযুক্তরা হলেন- গাজীপুর সিটি করপোরেশনের ১৬, ১৭ ও ১৮ নম্বর ওয়ার্ডের সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর রোকসানা আহমেদ রোজী (৪০) ও নগরীর গ্রেটওয়াল সিটির মোফাজ্জল হোসেনের বাড়ির কেয়ারটেকার মো. নূরুল হক (৬৫)। এছাড়া মামলায় অজ্ঞাত পরিচয়ে আরও দু-তিনজনকে আসামি করা হয়েছে।

জানা যায়, নারী কাউন্সিলর রোকসানা আহমেদ রোজী চার মাস আগে চান্দনা চৌরাস্তায় রহমান শপিংমলে তার পরিচালিত ‘আনন্দ বিউটি পার্লার’-এ তাকে চাকরি নেয়। কিছু দিন পর ওই এলাকার গ্রেটওয়াল সিটিতে নারী কাউন্সিলরের ভাড়া বাসার ফ্ল্যাটে নিয়ে তাকে দিয়ে বিউটি পার্লারের কাজ করানো হয়। পাশাপাশি তাকে কাজের মেয়ের পরিচয় দিয়ে জোরপূর্বক ঘরে বিভিন্ন ধরনের কাজ করানো হতো। প্রতিবাদ করলে নানা ধরনের হুমকি দেয়া হতো।

এজাহারে বলা হয়, গত ১৫ ডিসেম্বর থেকে ১৩ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত বিভিন্ন সময়ে আসামি নুরুল হকের সহযোগিতায় ওই ফ্ল্যাটে তাকে দিয়ে পতিতাবৃত্তির কাজে বাধ্য করানো হতো। একাধিকবার নারী কাউন্সিলরের বাসা থেকে চলে যাওয়ার চেষ্টা করলে তাকে আটকে রেখে পতিতাবৃত্তির কাজ করতে বাধ্য করা হয়। পরে কৌশলে পালিয়ে এসে বাসন মেট্রো থানায় মামলা করে ওই কিশোরী।

বাসন মেট্রো থানার ওসি কামরুল ফারুক জানান, ওই কিশোরীর বাড়ি নেত্রকোনায়। অভিযুক্ত নারী কাউন্সিলরের ভাড়া বাসায় থাকত ওই কিশোরী। দুই বছর আগে ধর্মান্তরিত হয়ে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করে। নারী কাউন্সিলর তাকে জিম্মি করেই দেহব্যবসা করিয়ে আসছিলেন বলে অভিযোগ এনে থানায় মামলা করেছে তিনি।

এসএস

RTV Drama
RTVPLUS