logo
  • ঢাকা সোমবার, ০১ মার্চ ২০২১, ১৬ ফাল্গুন ১৪২৭

তিনি এবং তার বন্ধুরা মিলে গৃহবধূকে ধর্ষণের পর ভিডিও ছড়িয়েছিলেন

গৃহবধূ×যোগাযোগ×ভরাডোবা×মামলা×জিজ্ঞাসাবাদ×শ্রীপুর×বাংলাদেশ×
ছবি সংগৃহীত

ময়মনসিংহের ভালুকা থানার ভরাডুবা এলাকা থেকে এক গৃহবধূকে অপহরণ করে গাজীপুরের শ্রীপুরে এনে গণধর্ষণ এবং তার ভিডিও ধারণ করে তা বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার ঘটনায় প্রধান আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব।

জয়দেবপুর থানার মনিপুর এলাকা থেকে আজ মঙ্গলবার দুপুরে র‌্যাব-১ এর সদস্যরা অভিযান চালিয়ে আসামি সোহাগ মিয়াকে (৩৫) গ্রেপ্তার করে। গ্রেপ্তার সোহাগ ময়মনসিংহ জেলার ভালুকা থানার ভরাডোবা এলাকার আলাল মিয়ার ছেলে।

গাজীপুরের কোম্পানি কমান্ডার আব্দুল্লাহ আল মামুন র‌্যাব-১ জানান, গেলো সেপ্টেম্বর ময়মনসিংহ জেলার ভালুকা থানার ভরাডোবা এলাকা হতে গৃহবধূকে অপহরণ করে প্রাইভেটকারে করে গাজীপুর জেলার শ্রীপুর থানার এমসি বাজার এলাকায় এনে জীবননাশের হুমকি দিয়ে নেশাজাতীয় দ্রব্য খাইয়ে গণধর্ষণ করা হয়।

অপহরণ ও গণধর্ষণের মূলহোতা সোহাগ ভিডিও বিভিন্ন সামজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়। পরে ওই গৃহবধূ বাদী হয়ে শ্রীপুর থানায় মামলা করেন। র‌্যাবের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সোহাগ জানায়, তিনি পেশায় একজন বাসচালক।

তার অন্যান্য সহযোগী তিন বন্ধু মিলে পাঁচ সেপ্টেম্বর রাতে ভুক্তভোগীকে অপহরণ করে গণধর্ষণ করে তার ভিডিও ধারণ করে। পরদিন সকালে ধর্ষকরা ভুক্তভোগীকে অজ্ঞান অবস্থায় রুমে তালাবদ্ধ করে রেখে চলে যান।

সোহাগ আরও জানায়, অর্থের বিনিময়ে ওই ভিডিও বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়। র‌্যাব তাকে গ্রেপ্তারের পর তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোন থেকে গণধর্ষণের ভাইরালকৃত ভিডিও ক্লিপ উদ্ধার করেছে।

জেবি

RTV Drama
RTVPLUS