logo
  • ঢাকা বুধবার, ২৭ জানুয়ারি ২০২১, ১৩ মাঘ ১৪২৭

ধানের শীষে ভোট দিতে চাপ দেয়ায় বিএনপির সভাপতিসহ ৪ জনের কারাদণ্ড

ধানের শীষে ভোট দিতে চাপ দেয়ায় বিএনপির সভাপতিসহ ৪ জনের কারাদণ্ড
ফাইল ছবি
বরিশালের চাপ দেয়া স্বত্বে ধানের শীষ প্রতীকে ভোট না দিয়ে প্রতিবাদ করার ফলে মারধরের ঘটনায় ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতিসহ চারজনকে কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। 

মঙ্গলবার বরিশাল জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক সাব্বির মো. খালিদ দুই আসামির উপস্থিতিতে এই রায় দেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলার দাড়িয়াল ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি ইসতিয়াক আহম্মেদ মাসুদ, মনির পালোয়ান, সানু হাওলাদার ও ফয়সাল খান। এর মধ্যে মনির পালোয়ান ও সানু হাওলাদার পলাতক রয়েছেন।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, ২০১৬ সালের ২১ মার্চ রাতে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের পূর্বে ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি ইসতিয়াক আহম্মেদ মাসুদ তার দলবল নিয়ে দক্ষিণ কাজলাকাঠি এলাকার বিভিন্ন ভোটারদের ধানের শীষে ও স্বতন্ত্র প্রার্থীর আনারস মার্কা ছাড়া অন্য কোন মার্কায় ভোট না দিতে ভয়ভীতি দেখান। খবর পেয়ে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী মনিরুজ্জামান খান লিটনসহ অন্যান্যরা তাদের বাধা দিতে এগিয়ে গেলে ইসতিয়াক আহম্মেদ মাসুদ ও তার সহযোগীরা তাদের এলোপাথাড়ি মারধর করে মোতাহর খানের বাড়িতে অবরুদ্ধ করে রাখেন। এবং মনিরুজ্জামানের বহরের মোটরসাইকেল ভাংচুর করে প্রায় ৭ লাখ টাকার ক্ষতিসাধন করেন। তাদের চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে এলে ইসতিয়াক আহম্মেদ মাসুদসহ অন্যান্যরা ১৫/২০ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ও পটকা ফাটিয়ে এলাকার ত্যাগ করেন। ওই দিনই মনিরুজ্জামান বাকেরগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করেন। একই বছর ৩ জুলাই মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই লুৎফর রহমান আদালতে আসামিদের অভিযুক্ত করে চার্জশিট জমা দেন এবং আদালত ১২ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ করেন। 

বরিশাল জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের এপিপি আব্দুল ওদুদু জানিয়েছেন, সাক্ষ্য ও যুক্তিতর্কে ভোটারদের ইচ্ছার বিরুদ্ধে ভোট দিতে বাধ্য করার ঘটনা প্রমাণিত হলে আদালত চার আসামিকে পৃথক ধারায় একবছর করে সশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেছেন। একইসঙ্গে প্রত্যেককে একহাজার টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে আরও একমাস করে সশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন।

এসএস

RTV Drama
RTVPLUS