logo
  • ঢাকা সোমবার, ২৫ জানুয়ারি ২০২১, ১১ মাঘ ১৪২৭

ঝালকাঠিতে ফোনে ডেকে নিয়ে যুবককে কুপিয়ে হত্যা

ঝালকাঠিতে ফোনে ডেকে নিয়ে যুবককে কুপিয়ে হত্যা
ঝালকাঠির কাঁঠালিয়ায় মোবাইলফোনে ডেকে নিয়ে রুবেল হোসেন (২৮) নামের এক যুবককে কুপিয়ে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষরা। শনিবার (১০ জানুয়ারি) রাতে উপজেলার উত্তর বলতলা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। 

হত্যার পরে মরদেহ তোষকে মুড়িয়ে সরিয়ে ফেলার পরিকল্পনা করা হচ্ছিল। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে স্থানীয় বাবুল হাওলাদারের ঘরের ভেতর থেকে মরদেহ উদ্ধার করে। এ ঘটনায় বাবুল হাওলাদারের স্ত্রী খাদিজা বেগমকে (৩০) জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে পুলিশ। 

নিহত রুবেল ওই গ্রামের মৃত আবদুল বারেক খানের ছেলে। পুরনো বিরোধের জেরে এ হত্যার ঘটনা ঘটেছে বলে পুলিশ জানায়।

পুলিশ ও নিহতের পরিবার জানায়, শনিবার সন্ধ্যায় রুবেল খান ও তাঁর বড় ভাই মামুন খান স্থানীয় সাতানী বাজার থেকে বাড়ি ফিরছিল। এসময় একই এলাকার বাবুল হাওলাদার মোবাইলফোনে রুবেলকে তার বাড়িতে যেতে বলেন। রুবেল তাদের বাড়িতে গেলে তাকে ঘরের ভেতর আটকে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে হত্যা করা হয়। এ সময় লাশ তোষকে মুড়িয়ে সরিয়ে ফেলার চেষ্টা করছিল খুনিরা। খবর পেয়ে নিহতের ভাই ওয়ালিদ খান ওই বাড়িতে গেলে বাবুলের স্ত্রী খাদিজা বেগম তাকেও কুপিয়ে হাতের কবজি কেটে দেয়। এ ঘটনায় রাতেই ঝালকাঠির অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. হাবীবুল্লাহ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে বাবুলের স্ত্রী খাদিজা বেগমকে আটক করে পুলিশ। তবে পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে বাবুল পালিয়ে যায়।

নিহতের পরিবার জানায়, বাবুল হাওলাদারের সঙ্গে ধানকাটা নিয়ে পুরনো বিরোধ ছিল রুবেল খানের সঙ্গে। এনিয়ে বাবুলের সঙ্গে কয়েকদিন ধরে দ্বন্দ্ব চলছিল। 

কাঁঠালিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) পুলক চন্দ্র রায় জানান, নিহত রুবেলর মা লুৎফুন্নার বেগম বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা করেছেন। আজ রোববার সকালে মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঝালকাঠি সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

২০১৮ সালে রুবেলের অপর ভাই রাসেল খানকে পার্শ্ববর্তী পিরোজপুরের ভান্ডারিয়া উপজেলার পূর্ব মাটিভাঙা এলাকায় কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। এছাড়াও ৮ বছর আগে রাজাপুর উপজেলার গাজীরহাট এলাকার শ্বশুর বাড়ি থেকে নিজ বাড়ি ফেরার পথে উত্তর চড়াইল এলাকায় লাঠির পিটুনিতে রুবেলের বাবা আবদুল বারেক খান নিহত হয়েছিলেন।

এসএস

RTV Drama
RTVPLUS