logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ২৬ জানুয়ারি ২০২১, ১২ মাঘ ১৪২৭

বাড়ি পৌঁছে দেয়ার কথা বলে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ

বাড়ি পৌঁছে দেয়ার কথা স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ
ফাইল ছবি
ভোলার বোরহানউদ্দিনে বাড়ি পৌঁছে দেয়ার কথা বলে, মোটরসাইকেলে তুলে নিয়ে গিয়ে নেশাজাতীয় দ্রব্য খাইয়ে এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত একজনকে আটক করেছে পুলিশ।

বুধবার দুপুরের গুরুতর অবস্থায় দশম শ্রেণির ওই ছাত্রীকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। 

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, স্কুলে কাজ শেষে বাড়ি ফেরার পথে ওই ছাত্রীকে বাড়ি পৌঁছে দেয়ার কথা বলে মোটরসাইকেলে তুলে নেন তজুমদ্দিন বাজারের দোকান কর্মচারী মাসুদ ও তার সহযোগী। এর পরে তাকে বাড়ি পৌঁছে না দিয়ে অজ্ঞাতস্থানে নিয়ে নেশাজাতীয় দ্রব্য খাইয়ে দুইজন মিলে ধর্ষণ করে।

বুধবার বেলা ৩টার দিকে গুরুতর অবস্থায় মাসুদ তাকে বোরহানউদ্দিন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। সেখানে অবস্থার উন্নতি না হলে রাতে তাকে ভোলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়।

নির্যাতনের শিকার স্কুলছাত্রী জানান, দুপুরে বাড়ি যাওয়ার জন্য স্কুলের সামনে দাঁড়িয়ে ছিলেন। এসময় পূর্ব পরিচিত মাসুদ তাকে বাড়ি পৌঁছে দেয়ার কথা বলে মোটরসাইকেলে তুলে নিয়ে যায় এবং ধর্ষণ করে। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় মাসুদই তাকে হাসপাতাল ভর্তি করে।

নির্যাতনের শিকার স্কুলছাত্রীর বাবা ও মা জানান, মেয়ের বাড়ি ফিরতে দেরি হওয়ায় তারা খোঁজাখুঁজি শুরু করেন। বিকেলে থানার ওসি ফোন করে জানান তার মেয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

সদর হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডা. মো. সায়েদুর রহমান জানান, রোগীকে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে কিন্তু তার রক্তক্ষরণ বন্ধ হচ্ছে না। 

এদিকে হাসপাতাল থেকে অভিযুক্ত মাসুদকে আটক করে পুলিশ। তার বাড়ি তজুমদ্দিন উপজেলায়। তিনি তজুমদ্দিন বাজারে একটি থাইগ্লাসের দোকানের কর্মচারী।

বোরহানউদ্দিন থানার ওসি মোহাম্মদ মাজহারুল আমিন, লিখিত অভিযোগ না পাওয়ায় মাসুদের বিষয়ে কোন কথা বলতে রাজি হননি। তবে তিনি জানান, লিখিত অভিযোগ পাওয়ার পর তিনি এ বিষয়ে তথ্য দেবেন। 

জিএম/এসএস

RTV Drama
RTVPLUS