logo
  • ঢাকা বুধবার, ২৭ জানুয়ারি ২০২১, ১৩ মাঘ ১৪২৭

একটি ঘরের জন্য বৃদ্ধা জহুরা খাতুনের আকুতি

Old Zahura Khatun
বৃদ্ধা জহুরা খাতুন
ঝালকাঠি রাজাপুর উপজেলার পুটিয়াখালী গ্রামের মোহাম্মদ আলী সিকদারের একমাত্র সম্বল বসতবাড়ি ও ফসলী নিয়ে ৫কাঠা জমি। শ্রমজীবীর কাজ করে সংসার চালাতেন মোহাম্মদ আলী।

জহুরা খাতুনের দাম্পত্য জীবনে ৩ ছেলে ও ৩ মেয়ে সন্তান আছেন। ২০১২ সালে স্বামী মারা যাবার পর নিজ ভিটায় কোনোভাবে জীবনযাপন করছেন।

টাকার অভাবে পুরাতন ঘরটি সংস্কার করতে না পারায় জীর্ণশীর্ণ ঘরটি এখন ধ্বসে পড়েছে। ছেলেরা সবাই শ্রমজীবী এবং মেয়ে ৩ সংসার করছেন তাদের মতো করে। ছোট ছেলে নাসির সিকদার পাশে একটি খুপরি ঘর করে বসবাস করছেন। অন্য ছেলেরা পিতার ফসলি জমি থেকে প্রাপ্য জমিতে কোনোমতে ঘর তুলে বসবাস করে জীবন অতিবাহিত করছেন। 

জহুরা খাতুন বলেন, শুনেছি সরকার গরিবের জন্য ঘর দিবে। আমার তো কোন ঘর নেই একটু জমি আছে তাতে ঘর তোলার অর্থ নেই আমার। আমি একটা ঘর পেলে  স্বামীর ভিটায় থাকতে পারতাম। 

স্বামীর ঘরটি বসবাসের অযোগ্য হয়ে পড়ায় ছেলেদের কাছে আলাদা আলাদা সময় নিয়ে থাকছেন। ঘরের অভাবে ছেলেদের কাছে দয়া নিয়ে থাকতে হচ্ছে। জীবনের শেষ প্রান্তে এসে তিনি স্বামীর ভিটায় থাকতে চাচ্ছেন। এজন্য সরকারের কাছে পুনর্বাসনের একটি ঘর বরাদ্দের জন্য দাবী জানাচ্ছেন। এ বিষয়ে রাজাপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে একটি ঘর পাওয়ার জন্য আবেদনও করেছেন জহুরা খাতুন।

জিএম/জিএ 

RTV Drama
RTVPLUS