logo
  • ঢাকা শনিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২০, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

পাখিদের নিরাপদ আশ্রয়

Safe shelter for birds
পাখিদের নিরাপদ আশ্রয়
২০ বছর ধরে চাঁদপুর জেলা প্রশাসকের ডাকবাংলো আর প্রেসক্লাব যেন সাদা বক আর পানকৌড়ির নিরাপদ আশ্রয়স্থল। সকাল-সন্ধ্যা পাখিদের কলকাকলি আর ওড়াউড়িতে পথচারীদের মন ভরে ওঠে। পাখিপ্রেমীরা বলছেন, স্থানটিকে নিরাপদ বলেই পাখি বাসা বেঁধে ঘর করে বছরের পর বছর অবস্থান করছে।  

জেলা প্রশাসকের ডাকবাংলো আর প্রেসক্লাব এ দুটি স্থাপনা ঘিরে সারি সারি গাছ। মনে হয় যেন শহরের বুকে এক টুকরো অরণ্য। সেখানে বাসা বেঁধেছে হাজারো সাদা বক আর পানকৌড়ি। দিনভর পাখির ওড়াউড়ি আর কলকাকলিতে মুখরিত থাকে পুরো এলাকা।

পাশেই ডাকাতিয়া নদীতে খাবারের খোঁজে আসে বক আর পানকৌড়ির দল। ঝাঁকে ঝাঁকে পানকৌড়ি আর বক ওড়ার দৃশ্য দেখে মুগ্ধ হয় পাখিপ্রেমিরা।

পাখিপ্রেমী ও পথচারীরা বলেন, আমাদের ভালো লাগে যে আমাদের এলাকায় এই ধরনের পাখিরা থাকে। আমরা কখনও তাদের কারণে বিরক্ত হই না। এজন্য হয়তো এরা এখানে এতদিন ধরে বসবাস করছে। প্রতিনিয়ত পাখিগুলো আসতে আসতে এটি একটা দর্শনীয় স্থানে রূপান্তর হয়েছে। প্রতিদিন অনেক মানুষ এখানে আসে পাখি দেখতে।

পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় পাখির প্রতি যত্নবান হওয়া উচিত বলে মনে করেন চাঁদপুর সরকারি কলেজের প্রাণিবিজ্ঞান বিভাগের বিভাগীয় প্রধান মো. শওকত ইকবাল ফারুকী। তিনি বলেন, সকল প্রাণি ও উদ্ভিদ আমাদের বন্ধু। যদি আমরা এদের প্রতি যত্নশীল হই তাহলে এরা ভালো থাকবে এবং আমরাও ভালো থাকবো। কেননা আমরা একে অপরের সঙ্গে ওতপ্রোতভাবে জড়িত। 

পাখিদের আবাসস্থল নিরাপদ রাখার জন্যে সবাইকে এগিয়ে আসার আহ্বানও জানান তিনি।
আরএস/পি
 

RTVPLUS