logo
  • ঢাকা শনিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২০, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

গাজীপুরে গৃহবধূকে তুলে নিয়ে নির্যাতন 

Gazipur,
ফাইল ছবি।
গাজীপুরে স্বামীর সঙ্গে পরকীয়া সন্দেহে তুলে নিয়ে আটকে মারপিট ও কেঁচি দিয়ে চুল কেটে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। চাঞ্চল্যকর এ ঘটনার দু'দিন পর গেলো রাতে দুইজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অন্যান্যদের গ্রেপ্তারের জন্য অভিযান চলছে বলে জানায় পুলিশ।

এদিকে হাসপাতাল থেকে ফিরে নিজ বাসায় যেতে পারছেন না ওই গৃহবধূ। সামাজিক লজ্জা আর নিরাপত্তাজনিত কারণে ঠাঁই নিয়েছেন বোনের ভাড়া বাসায়।

ঘটনার দিন গেলো ২৫ অক্টোবর শহরের সালনা এলাকায় বাসায় ফেরার পথে ওই গৃহবধূকে টেনে-হিঁচড়ে রিকশা থেকে নামিয়ে নিজ ঘরে আটকে নির্যাতন করে পরিবহন শ্রমিক নেতা বাবুলের স্ত্রী ও তার লোকজন। পরে স্বামীর সঙ্গে পরকীয়ার অভিযোগ তুলে কেচি দিয়ে মাথার চুল কেটে নেয়াসহ ওই গৃহবধূর আপত্তিকর ছবি মুঠোফোনে ধারণ করে অভিযুক্তরা। 

এমন কি, ঘটনা কাউকে জানালে ফেসবুকে ছবি ছড়িয়ে দেয়ারও হুমকি দেয়া হয়। পরবর্তীতে স্বজনের সহযোগিতায় হাসপাতালে চিকিৎসা নেয় ওই গৃহবধূ। চাঞ্চল্যকর এ ঘটনায় দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি স্বজনদের।

এদিকে নেক্কারজনক এ ঘটনায় প্রধান আসামি ফাহিমা আক্তার ও শাহিদা খাতুনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন উপ পুলিশ কমিশনার (ডিবি উত্তর) জিএমপি জাকির হাসান।

নির্যাতিতা গৃহবধূ এক ছেলে ও এক মেয়ে নিয়ে বসবাস করছিল। ভাইয়ের চাকরি নিতে গিয়ে পরিবহন শ্রমিক নেতা বাবুলের সঙ্গে এক বছর আগে পরিচয় হয়েছিল গৃহবধূর।

এম 

RTVPLUS