logo
  • ঢাকা শুক্রবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

প্রতারিত হওয়ায় আত্মহত্যা, ১০ মাস পর ‘প্রেমিক’ গ্রেপ্তার

প্রতারিত হওয়ায় আত্মহত্যা, ১০ মাস পর ‘প্রেমিক’ গ্রেপ্তার
ফাইল ছবি
গাজীপুরে এক গৃহকর্মীকে (১৮) বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণের অভিযোগে হাবিবুর রহমান হাবিব (২২) নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল সোমবার (২৬ অক্টোবর) হবিগঞ্জ থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে টঙ্গী পূর্ব থানা পুলিশ।

পুলিশ জানায়, আরিচপুর শেরেবাংলা রোডের মোশারফ হাসানের বাসায় কাজ করতো ওই গৃহকর্মী। ওই বাসার পাশেই একটি হোটেল বাবুর্চি হিসেব কাজ করতো হাবিবুর রহমান হাবিব। তারা উভয়ই পাশাপাশি বাসায় থাকায় তাদের দুজনের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এই সুবাদে তারা উভয়ই বিভিন্ন জায়গায় ঘোরাঘুরি করতে যায় এবং ওই কিশোরীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে তার সঙ্গে অবৈধ মেলামেশা করে হাবিব। পরে হাবিব তার সঙ্গে প্রতারণা করণে অভিমানে গেল ৪ জানুয়ারি ওই কিশোরী মোশারফ হাসানের বাসায় সিলিং ফ্যানর সঙ্গে ওড়না পেঁচিয়ে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করে। পরে বাড়ির মালিক ৯৯৯-এর মাধ্যমে টঙ্গী পূর্ব থানা পুলিশকে খবর দিলে থানা পুলিশ দরজা ভেঙে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে। 

এ ঘটনায় গত ৪ জানুয়ারি টঙ্গী পূর্ব থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা (নং-০১/২০২০) দায়ের করা হয়। পরে পুলিশ নিহতের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠায়। ময়নাতদন্তে ওই কিশোরী যৌন নির্যাতনের শিকার হয়েছেন মর্মে রিপোর্ট আসে। এ ঘটনায় গত সোমবার টঙ্গী পূর্ব থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা (নং-৩৭) দায়ের করা হয়। পরে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-পুলিশ কমিশনার অপরাধ (দক্ষিণ) ইলতুৎ মিশের নির্দেশে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই জুলহাস উদ্দিন ওই দিনই তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে হবিগঞ্জ জেলার মাধবপুর থানার পুড়াইখলা গ্রাম থেকে হাবিবুর রহমান হাবিবকে গ্রেপ্তার করে টঙ্গী পূর্ব থানায় নিয়ে আসে।

এ বিষয়ে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-পুলিশ কমিশনার অপরাধ (দক্ষিণ) ইলতুৎ মিশ বলেন, তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে মামলার আসামি হাবিবুর রহমান হাবিবকে হবিগঞ্জ থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

এসএস

RTVPLUS