Mir cement
logo
  • ঢাকা রোববার, ০১ আগস্ট ২০২১, ১৭ শ্রাবণ ১৪২৮

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি, আরটিভি নিউজ

  ২০ অক্টোবর ২০২০, ০৮:৩৭
আপডেট : ২০ অক্টোবর ২০২০, ০৮:৫৪

হাসপাতালে গৃহবধূর লাশ ফেলে পালিয়েছেন স্বামী

Map of Brahmanbaria
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার মানচিত্র

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় শিল্পী আক্তার (১৮) নামে এক গৃহবধূর লাশ হাসপাতালে রেখে পালিয়েছে তার স্বামী।

সোমবার (১৯অক্টোবর) সন্ধ্যা ৭টার দিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালের জরুরী বিভাগে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত শিল্পী আক্তার মাধবপুর উপজেলার বুল্লা ইউনিয়নের মাল্লা গ্রামের দক্ষিণ পাড়া এলাকার মৃত ফিরোজ মিয়ার মেয়ে।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, প্রায় ৩ মাস আগে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার বিজয়নগর উপজেলায় চান্দুরা ইউনিয়নের জালালপুর মতি মেম্বারের বাড়ির মৃত তালেব আলীর ছেলে ফারুক মিয়া বিয়ে করেন শিল্পীকে। বিয়ের পর থেকেই পারিবারিক কলহ দেখা যায় ফারুক-শিল্পী দম্পতির।

গত কয়েকদিন ধরে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া চলছিলো। সোমবার বিকেলে বাসায় ফিরে শিল্পীকে ঘরের বিছানার ওপর অচেতন অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে ফারুক। এসময় তার মুখ দিয়ে ফেনা বের হচ্ছিলো। পরে তার অবস্থার অবনতি হলে চিকিৎসার জন্য স্বামী ও পরিবারের লোকজন শিল্পীকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যান।

সেখানে জরুরী বিভাগের চিকিৎসক ডা. নাজমুল হক রনি মৃত ঘোষণা করলে স্বামী ফারুক ও তার পরিবারের কাউকে পাওয়া যায়নি। পরে শিল্পীর লাশ হাসপাতালে ফেলে পালিয়ে যায় ফারুক। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ পুলিশকে জানালে নিহত শিল্পীর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ওই হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়।

নিহতের দুলাভাই নুরুল ইসলাম অভিযোগ করে বলেন, শিল্পীর বিয়ের পর থেকে মারধর করতেন তার স্বামী ফারুক। প্রায় সময় ফারুকের বোনের সাথে কথা-কাটাকাটি হতো শিল্পীর। এসব অত্যাচার সহ্য না করতে পেরে সোমবার সকালে বাপের বাড়িতে যাওয়ার পথে ফারুক জোরপূর্বক ভাবে নিয়ে আসে। বিকেলে শিল্পীকে বিষ পান করে হত্যা করা হয় ৷ শিল্পী মারা গেলে হাসপাতালে লাশ ফেলে পালিয়ে যায় ফারুক। অনেক খোঁজাখুঁজির পর আমরা হাসপাতালে এসে জানতে পারি শিল্পী মারা গেছে।

আরও পড়ুনঃ

প্রেমে সাড়া না পেয়ে নিজের গলায় ছুরিকাঘাত

জয়পুরহাটে ইউপি চেয়ারম্যানসহ ৭ জুয়াড়ি জেল হাজতে

মাদরাসার শিক্ষকের কাছে ধর্ষণের শিকার শিক্ষার্থী

বিজয়নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) আতিকুর রহমান জানান, দাম্পত্য কলহের জেরে স্বামীর সঙ্গে অভিমান করে সোমবার সন্ধ্যার পর শিল্প বিষ পান করে আত্মহত্যা করেছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। নিহতের মুখে ফেনা ও বিষের গন্ধ রয়েছে। তবে এ ঘটনাটি হত্যা না আত্মহত্যা তা ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন পাওয়ার পর নিশ্চিত হওয়া যাবে।

জিএম/জিএ

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS