smc
logo
  • ঢাকা শনিবার, ৩১ অক্টোবর ২০২০, ১৬ কার্তিক ১৪২৭

রাজবাড়ীতে শহর রক্ষা বাঁধের ১২০ মিটার নদীগর্ভে 

  রাজবাড়ী প্রতিনিধি, আরটিভি নিউজ

|  ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৮:৫৬ | আপডেট : ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ২১:১৭
In Rajbari, 120 meters, of river protection rtv news
ছবি: সংগৃহীত
পদ্মা নদীতে হঠাৎ পানি বৃদ্ধির ফলে গতকাল সোমবার গভীর রাতে রাজবাড়ী  শহর রক্ষা বেড়িবাঁধের ডান তীরের গোদার বাজার সংলগ্ন ১২০ মিটার নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। বাঁধরক্ষায় পদ্মার তীরের নদীর পার রক্ষণের বোল্ডারসহ এলাকার বন্য নিয়ন্ত্রণ বাঁধসংলগ্ন বাংলাদেশ সেনাবাহিনী কর্তৃক নির্মাণ করা জেলার একমাত্র বিনোদন কেন্দ্র বন্ধন’ অবকাশ কেন্দ্রটি মুহূর্তে নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যায়। এতে করে আতঙ্কের মধ্যে রয়েছেন গোদার বাজার গ্রামসহ রাজবাড়ী শহরবাসী।

রাজবাড়ী পানি উন্নয়ন বোর্ডর নির্বাহী প্রকৌশলী এম, রাহাত জানান, নদীতে পানি বৃদ্ধি ও তীব্র স্রোত ও বাতাসের কারণে গত সোমবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে বাংলাদেশ সেনাবাহীনী কর্তৃক নির্মাণ করা বন্ধন’ অবকাশ কেন্দ্রসহ ১২০ মিটার নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। যে কারণে তারা সকাল থেকেই ভাঙন প্রতিরোধে কাজ শুরু করেছেন। ভাঙন ঠেকাতে জরুরি ভিত্তিতে মঙ্গলবার দিনভর সেখানে এক হাজার ৩৫০ বস্তা বালুভর্তি জিও ব্যাগ ফেলা হয়েছে।

স্থানীয়দের তথ্যমতে গতকাল সোমবার রাত ১০ থেকে ১২টা পর্যন্ত দুই ঘণ্টার মধ্যে ছাতার তলা থেকে পশ্চিম দিক পর্যন্ত আনুমানিক ২০ মিটার নদীর পাড় এলাকা নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে।

 স্থানীয়রা জানান, ভাঙন যদি এইভাবে চলতে থাকে তাহলে নদীসংলগ্ন বেড়িবাঁধ ও স্থানীয় জনগণের বসতবাড়ী, দোকানপাট খুব দ্রুত ভাঙনের শিকার হবে।

এতে স্থানীয় জনগণ তীব্র ভাঙন আতঙ্কে সময় কাটাচ্ছেন। ভাঙন রোধে স্থানীয় জনগণ দ্রুত প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

পদ্মাকন্যা খ্যাত রাজবাড়ী জেলার দর্শনার্থীদের ভ্রমণের জন্য জেলা সদরের সবচেয়ে জনপ্রিয় টুরিস্ট স্পট হিসেবে খ্যাত গোদার বাজার পদ্মার পাড়। কিন্তু গত বছর তীব্র নদী ভাঙনের কারণে গোদার বাজার পদ্মার পাড়ের নদীসংলগ্ন সাধারণ জনগণের অনেক ক্ষয়ক্ষতি হয়। ভাঙণের ফলে স্থানীয় অনেককে বসত-বাড়ি ভেঙে তা অন্যত্র সরিয়ে নিতে হচ্ছে। এলাকার মানুষের মধ্যে দেখা দিয়েছে তীব্র ভাঙন আতঙ্ক।

তেমনিভাবে এবারও গোদার বাজার পদ্মা নদীর পাড়ে দেখা দিয়েছে ভাঙন। সরজমিনে দেখা যায়, নদী পাড়ের মূল আকর্ষণ ‘রাজবাড়ী জেলা প্রশাসন এবং সেনাবাহিনীর ৫৫ পদাতিক ডিভিশনের নির্মাণ করা ‘বন্ধন’ স্থানীয় জনগণের ভাষায় ‘ছাতার তলার’ সম্পূর্ণ অংশ নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে।

জেবি/এম 

RTVPLUS
bangal
corona
দেশ আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বাংলাদেশ৪০৩০৭৯ ৩১৯৭৩৩ ৫৮৬১
বিশ্ব ৪,৪৩,৫৭,৬৭১ ৩,২৫,০৫,১৫৫ ১১,৭৩,৮০৮
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • দেশজুড়ে এর সর্বশেষ
  • দেশজুড়ে এর পাঠক প্রিয়