smc
logo
  • ঢাকা রোববার, ২৫ অক্টোবর ২০২০, ১০ কার্তিক ১৪২৭

ছাত্রাবাসে গণধর্ষণ

ছাত্রাবাসে ধর্ষণকারীদের শাস্তি চান রনজিত সরকারও

  স্টাফ রিপোর্টার, সিলেট

|  ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২:৩০ | আপডেট : ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৩:৩৩
Principal of Sylhet MC College
রনজিত সরকার
সিলেট এমসি কলেজের ছাত্রাবাসে গণধর্ষণের ঘটনায় ধর্ষণের সঙ্গে জড়িত ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের শাস্তি দাবি করেছেন যার অনুসারী হিসেবে ধর্ষণকারীরা পরিচিত সেই সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক রনজিত সরকার।

শনিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) এ বিষয়ে নিজের ফেসবুক একাউন্ট থেকে দেয়া এক স্ট্যাটাসে রনজিত সরকার লেখেন-

পুণ্যভূমি সিলেটে এমন নিকৃষ্ট ঘটনা ঘটবে তা আমাদের কল্পনাতীত ছিল, এমন ন্যক্কারজনক ঘটনা ১৯৭১ সালে পাকিস্তানি হায়েনাদের কর্মকাণ্ডকে হার মানিয়েছে। স্বামীর কাছ থেকে স্ত্রীকে নিয়ে স্বামীর সম্মুখে যারা ধর্ষণ করছে তারা মানুষ নয় হায়েনা তাদের কোন দল, গোত্র, দেশ কিংবা মানুষ নামে পরিচয় থাকতে পারে না। এই ন্যক্কারজনক ঘটনার প্রতিবাদ জানানোর ভাষা হরিয়ে ফেলেছি। আমি আমার অবস্থান থেকে এদের বিরুদ্ধে কঠোর থাকব, সবাইকে কঠোর থাকার আহবান জানাচ্ছি।

এদের বিচারের জন্য পুলিশের কাছে ধরিয়ে দিতে সবাই যার যার অবস্থান থেকে সোচ্চার থাকবেন। নরপশুদের সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি করছি।

এদিকে সিলেট এমসি কলেজের ছাত্রাবাসে গত শুক্রবার রাতে গণধর্ষণের ঘটনায় ছাত্রলীগের ৬ নেতাসহ ৯ জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। ছাত্রাবাসে ধর্ষণকাণ্ডে ক্ষোভে উত্তাল সিলেট। বিভিন্ন মহল থেকে ধর্ষকদের শাস্তির দাবি উঠেছে। গণধর্ষণের ঘটনায় কলেজ অধ্যক্ষ ও ছাত্রাবাস সুপারের পদত্যাগ দাবি করেছে সিলেট জেলা আওয়ামী লীগ। ধর্ষকদের শাস্তি দাবি করেছেন যার অনুসারী হিসেবে ধর্ষণকারীরা পরিচিত সেই রনজিত সরকারও।

এ ঘটনায় সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট নাসির উদ্দিন সাক্ষরিত বিবৃতি উল্লেখ করা হয়- শুক্রবার রাত আনুমানিক ৮ টায় সিলেট এমসি কলেজ ক্যাম্পাসে বেড়াতে আসা এক দম্পতিকে রাত ৯ টায় কতিপয় ছাত্র নামধারী দুর্বৃত্ত স্বামী-স্ত্রীকে কলেজ ছাত্রাবাসে ধরে নিয়ে স্বামীকে রশি দিয়ে বেঁধে রেখে স্ত্রীকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে তারা ঐতিহ্যবাহী সিলেট এমসি কলেজকে কলুষিত করেছে। আমারা বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সিলেট জেলা শাখার সভাপতি এডভোকেট মো. লুৎফুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট মো. নাসির উদ্দিন খান উক্ত ন্যক্কারজনক ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ এবং দোষীদের দ্রুত গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় নিয়ে আসার জন্য জোর দাবি জানাচ্ছি।

বিবৃতিতে বলা হয়- করোনাকালীন যেখানে সারা দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে সেখানে সিলেট এমসি কলেজের মত স্বনামধন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্রাবাসে যেভাবে দুর্বৃত্তরা প্রবেশ করে স্বামীকে বেঁধে রেখে স্ত্রীকে ধর্ষণ করেছে, তা আমরা মেনে নিতে পারছি না। আমরা সিলেট জেলা আওয়ামী লীগ নির্যাতিতা উক্ত নারী ও তার পরিবারের পাশে থেকে যতটুকু আইনি সহায়তা প্রদান করা প্রয়োজন তা করতে প্রস্তুত আছি। পাশাপাশি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও ছাত্রাবাস বন্ধ থাকাকালীন কিভাবে দুর্বৃত্তরা স্বামী-স্ত্রীকে ধরে নিয়ে ছাত্রাবাসে প্রবেশের সুযোগ পেল তা সিলেট জেলা আওয়ামী লীগ কলেজ কর্তৃপক্ষের কাছে জানতে চায়। কলেজ কর্তৃপক্ষ তাদের দায়িত্বাধীন প্রতিষ্ঠানে আদৌ কোনো নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়েছিলেন কি না তা আজ প্রশ্নবিদ্ধ। আমরা সিলেট এমসি কলেজের অদক্ষ, দায়িত্বহীন অধ্যক্ষ ও ছাত্রাবাসের সুপারের পদত্যাগ দাবি করছি। উক্ত ন্যক্কারজনক ঘটনার সাথে যারা জড়িত তারা কোন দলের হতে পারে না। ধর্ষকদের কোন দল নেই। তাদের পরিচয় একটাই তারা ঘৃণ্য অপরাধী। অনতি বিলম্বে এই ঘৃণ্য অপরাধীদের গ্রেপ্তার করে বিচারের আওতায় নিয়ে আসার জন্য সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের কাছে জোর দাবি জানাচ্ছি।

অপরদিকে দীর্ঘদিন ধরে কলেজ বন্ধ থাকা অবস্থায়ও ছাত্রাবাস খোলার রাখার ব্যাপারে এমসি কলেজের অধ্যক্ষ সালেহ আহমদ বলেন, কলেজের গরীব ও মেধাবী ছাত্রদের সুবিধার জন্য ছাত্রাবাস খোলা ছিল। যারা কিনা টিউশনি ও ছোটখাটো চাকরি করে তাদের পড়াশোনার খরচ যোগাচ্ছে। তবে কলেজের ছাত্রাবাস খোলা থাকলেও হোস্টেলের ক্যান্টিন বন্ধ ছিল, ছাত্রাবাসে অবস্থানরত শিক্ষার্থীরা খাওয়া দাওয়া করতো বাইরেই।

তবে কলেজ সূত্রে জানা গেছে, দীর্ঘদিন ধরেই এমসি কলেজ ছাত্রাবাস ছাত্রলীগের দখলে। ছাত্রদের পাশাপাশি অনেক অছাত্রও এখানে আস্তানা গেড়েছে। ছাত্রাবাসের ভেতরে নিজেদের সাম্রাজ্য গড়ে তুলেছে কিছু ছাত্রলীগ নেতাকর্মী। টিলাগড় এলাকার একাধিক আওয়ামী লীগ নেতাদের প্রশ্রয়ে ছাত্রাবাসে ভেতরে নানা অপকর্ম চালিয়ে আসছে তারা। মাদক সেবন ও ব্যবসা, জুয়ার আসর বসানোসহ নানা অপকর্ম চলে ছাত্রাবাসের ভেতরে। ছাত্রাবাসের ভেতরে অস্ত্রের মজুদ করে রাখারও অভিযোগ রয়েছে।

জিএ

RTVPLUS
bangal
corona
দেশ আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বাংলাদেশ৩৯৪৮২৭ ৩১০৫৩২ ৫৭৪৭
বিশ্ব ৪,১৫,৭০,৮৩১ ৩,০৯,৫৮,৫৪৬ ১১,৩৭,৭০৩
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • দেশজুড়ে এর সর্বশেষ
  • দেশজুড়ে এর পাঠক প্রিয়