• ঢাকা শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১
logo

এবার কারওয়ান বাজার মোড় অবরোধ শিক্ষার্থীদের

আরটিভি নিউজ

  ০৭ জুলাই ২০২৪, ১৮:৩৭
ছবি: আরটিভি

কোটাবিরোধী আন্দোলনের অংশ হিসেবে এবার রাজধানীর কারওয়ান বাজার মোড় অবরোধ করেছেন শিক্ষার্থীরা।

রোববার (৭ জুলাই) বিকেল ৬টায় ‘বাংলা ব্লকেড’ কর্মসূচির অংশ হিসেবে এ অবরোধ করেন তারা।

জানা গেছে, এদিন বিকেল ৪টার দিকে ইন্টারকন্টিনেন্টাল মোড় অবরোধের পর সেখান বাংলামোটরের পর কারওয়ানবাজার মোড়ের চারপাশের রাস্তা বন্ধ করে দিয়ে অবরোধ করেন শিক্ষার্থীরা।

এ সময় শিক্ষার্থীরা ‘একাত্তরের পথ ধরো, বাংলা ব্লকেড সফল করো’, ‘কোটা না মেধা, মেধা মেধা’ প্রভৃতি বলে স্লোগান দিচ্ছেন। ‘বৈষম্যবিরোধী ছাত্র আন্দোলন’ ব্যানারে এই কর্মসূচি শুরু হয়েছে।

অবস্থান নেওয়া শিক্ষার্থীরা বলেন, তারা বাংলা ব্লকেডের অংশ হিসেবে তারা এ অবরোধ করেছেন। তাছাড়া সুফিয়া কামাল হলের মেয়েরা চানখারপুল অবরোধ করেছেন। ঢাকা কলেজ এবং ইডেন কলেজ শিক্ষার্থীরা নিউমার্কেট-সায়েন্সল্যাব রোড অবরোধ করেছেন। তাদের দাবি আদায়ের আগ পর্যন্ত এই অবরোধ চালিয়ে যাবেন বলে জানিয়েছেন তারা।

এ সময় আটকে পড়া যাত্রী এবং বাস চালকদের উদ্দেশে শিক্ষার্থীরা বলেন, আপনারা যেসব যাত্রী, গাড়িচালক ভাইয়েরা, ভেতর বসে আছেন, আপনার কিংবা আপনাদের সন্তানের জন্যই আমাদের আন্দোলন। যাদের কোনো কোটা নেই, তারা যেন পড়ালেখা করে চাকরি পায়, তারা যেন বঞ্চিত না হয় সেজন্যই আমাদের এ আন্দোলন। দয়া করে আমাদের সহযোগিতা করুন। সন্তানদের ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে আজকের সামান্য কষ্ট সহ্য করুন।

উল্লেখ্য, ২০১৮ সাল পর্যন্ত বাংলাদেশে সরকারি চাকরিতে ৫৬ শতাংশ কোটা প্রচলিত ছিল। এর মধ্যে ৩০ শতাংশ মুক্তিযোদ্ধা কোটা, ১০ শতাংশ নারী কোটা, অনগ্রসর জেলার বাসিন্দাদের জন্য ১০ শতাংশ কোটা, ক্ষুদ্র জাতিগোষ্ঠীর মানুষদের জন্য ৫ শতাংশ এবং প্রতিবন্ধীদের জন্য ১ শতাংশ আসন সংরক্ষিত ছিল।

ওই বছর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ দেশের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে কোটা সংস্কারের দাবিতে বড় বিক্ষোভ হয়। কোটাব্যবস্থার সংস্কার করে ৫৬ শতাংশ কোটা থেকে ১০ শতাংশে নামিয়ে আনার দাবি জানিয়েছিলেন আন্দোলনকারীরা। পরে সে বছরের ৪ অক্টোবর কোটাপদ্ধতি বাতিলবিষয়ক পরিপত্র জারি করে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়।

এর মাধ্যমে ৪৬ বছর ধরে প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির সরকারি চাকরিতে যে কোটাব্যবস্থা ছিল, তা বাতিল হয়ে যায়। পরে ২০২১ সালে সেই পরিপত্রের মুক্তিযোদ্ধা কোটা বাতিলের অংশটিকে চ্যালেঞ্জ করে কয়েকজন মুক্তিযোদ্ধার সন্তান উচ্চ আদালতে রিট করেন। সেই রিটের রায়ে চলতি বছরের ৫ জুন পরিপত্রের ওই অংশ অবৈধ ঘোষণা করা হয়। এরপর থেকেই চাকরিপ্রত্যাশী সাধারণ শিক্ষার্থীরা মাঠে নামছেন।

মন্তব্য করুন

  • রাজধানী এর পাঠক প্রিয়
আরও পড়ুন
কুবি শিক্ষার্থীদের ওপর পুলিশি হামলার প্রতিবাদে জাবিতে মশাল মিছিল
স্কুলের মাঠ দখল করে ঠিকাদারের নির্মাণসামগ্রী, বিপাকে শিক্ষার্থীরা
শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে স্বাধীনতাবিরোধী অপশক্তি ভর করেছে: কাদের
পুলিশের হামলা করা স্থানকে ‘ছাত্র আন্দোলন চত্বর’ নামকরণ কুবি শিক্ষার্থীদের