• ঢাকা বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১
logo

চাঁদার দাবিতে মারধরের অভিযোগে কারাগারে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা

আরটিভি নিউজ

  ০৪ জুন ২০২৪, ১০:৩১
মেহেদী হাসান। ছবি : সংগৃহীত

রাজধানীর পলাশী বাজার এলাকায় চাঁদার দাবিতে দুই ব্যবসায়ীকে মারধরের অভিযোগে হওয়া মামলায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) সলিমুল্লাহ মুসলিম হলের সাবেক সভাপতি মেহেদী হাসান এবং তার সহযোগী কাজী মো. শহিদুল ইসলামকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত।

মঙ্গলবার (৪ জুন) চকবাজার থানার আদালতের সাধারণ নিবন্ধন শাখার সাব-ইন্সপেক্টর মো. সেলিম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

মামলাটির তদন্ত কর্মকর্তা চকবাজার মডেল থানার সাব-ইন্সপেক্টর মো. আলমগীর গত সোমবার (৩ জুন) দুই আসামিকে আদালতে হাজির করে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট রশিদুল আলমের আদালত তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, পলাশী মার্কেটে আসামিরা বিভিন্ন সময়ে চাঁদাবাজি করতো। ব্যবসায়ীরা চাঁদা না দিলে নানা ধরনের ভয়ভীতি ও হুমকি দিতো তারা। গত ২ জুন রাতেও সাড়ে ১০টার দিকে দোকানে গিয়ে দুই ব্যবসায়ীর কাছ থেকে ২ লাখ করে ৪ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে মেহেদী ও তার সহযোগী। কিন্তু ব্যবসায়ীরা চাঁদা দিতে অস্বীকৃতি জানালে আসামিরা তাদের মারধর করে। এমনকি মার্কেটের কসাইয়ের দোকান থেকে চাপাতি এনে তাদের মেরে ফেলার হুমকি দেয়। তখন মার্কেটের দোকানদাররা তাদের ধরে ফেলে এবং মারধর করে। খবর পেয়ে পুলিশ এসে তাদের নিয়ে যায়। চাঁদাবাজির এ ঘটনায় ওবাইদুল হাসান নামে এক ব্যবসায়ী সোমবার মামলাটি দায়ের করেন।

মন্তব্য করুন

  • রাজধানী এর পাঠক প্রিয়
আরও পড়ুন
ছাত্রলীগ নেতাকে তুলে নিয়ে মারধর করলেন কোটা আন্দোলনকারীরা
কোটাবিরোধী সন্দেহে রিকশাযাত্রীদের মারধর
ঢাবির বিভিন্ন হলে শিক্ষার্থীদের মারধর ও হল ছাড়া করার অভিযোগ
২ বিলিয়ন মার্কিন ডলার সমপরিমাণ অর্থ দেবে চীন: প্রধানমন্ত্রী