logo
  • ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২১ জানুয়ারি ২০২১, ৭ মাঘ ১৪২৭

ভাসানচরে রোহিঙ্গা স্থানান্তর হলেও মিয়ানমারে ফিরতে হবে

Rohingya, transferred, Bhasanchar, return, Myanmar
রোহিঙ্গাদের আবাসস্থল
প্রথম ধাপে ১ হাজার ৬৪২ জন রোহিঙ্গা কক্সবাজারের উখিয়া থেকে নোয়াখালীর ভাসানচরে আনা হয়েছে। রোহিঙ্গাদের ভাসানচরে স্থানান্তর করা হলেও তাদেরকে মিয়ানমারে প্রত্যাবাসনে বাংলাদেশ অগ্রাধিকার দেবে বলে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে এক বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে।

আজ শুক্রবার (৪ ডিসেম্বর) পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, ভাসানচরে অস্থায়ীভাবে আশ্রয় দেওয়া হলেও মিয়ানমারে তাদের ফিরতেই হবে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, রোহিঙ্গাদের প্রথম দল শুক্রবার ভাসানচরে পৌঁছেছেন। সেখানে ১৬শর বেশি রোহিঙ্গা গেছেন। যারা স্বেচ্ছায় সেখানে যেতে চেয়েছেন তাদেরই পাঠানো হয়েছে। ভাসানচরে এক লাখ রোহিঙ্গাকে পাঠানো হবে। রোহিঙ্গারা মিয়ানমারের নাগরিক। তাদের অবশ্যই মিয়ানমারে ফিরতে হবে। অস্থায়ীভাবে আশ্রয়প্রাপ্ত মিয়ানমার নাগরিকদের নিরাপত্তা ও সুরক্ষার জন্য বাংলাদেশ সরকার সর্বোচ্চ চেষ্টা করছে। মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের ফিরে যাওয়াটাই এই সঙ্কটের একমাত্র টেকসই সমাধান।

রোহিঙ্গাদের ভাসানচরে নেওয়ার আগে তাদের কমিউনিটি থেকে নেতারা পরিদর্শন করেছেন। এনজিও ও গণমাধ্যমের কর্মীরাও পরিদর্শন করেছেন। ভাসানচর পুরোপুরি সুরক্ষিত। রোহিঙ্গাদের জন্য সরকার থেকে ভাসানচরে বাসস্থান, খাদ্য, চিকিৎসা সুবিধা নিশ্চিত করা হয়েছে। ভাসানচরে সরকারের বিভিন্ন সংস্থা ও ২২টি এনজিও সহায়তা দেবে।

রোহিঙ্গাদের নিয়ে বাংলাদেশ সরকারের প্রকৃত প্রচেষ্টাকে দুর্বল বা ভুল ব্যাখ্যা না করার জন্য সর্বাত্মক সতর্কতা অবলম্বন করার আহ্বান জানিয়েছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

এফএ 

RTV Drama
RTVPLUS