logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২ আশ্বিন ১৪২৬

বাংলাদেশ এখন এসকিমির কেন্দ্রীয় অঞ্চল

বাংলাদেশের লুতফি চৌধুরী এসকিমি দক্ষিণ এশিয়ার ব্যবস্থাপনা পরিচালক

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ২৫ আগস্ট ২০১৯, ০৫:৪০ | আপডেট : ২৫ আগস্ট ২০১৯, ০৯:১৬
বাংলাদেশ, এসকিমি
ছবি: সংগৃহীত
বাংলাদেশের লুতফি চৌধুরী এসকিমি দক্ষিণ এশিয়ার ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবে নিযুক্ত হয়েছেন। তিনি এর আগে এসকিমি দক্ষিণ এশিয়ার আঞ্চলিক ব্যবস্থাপক ছিলেন।

পাশাপাশি বাংলাদেশকে এসকিমির কেন্দ্রীয় অঞ্চল করা হয়েছে। অর্থাৎ এখন বাংলাদেশ থেকেই এশিয়ায় এসকিমির কার্যক্রম নির্দেশিত হবে।

এসকিমি একটি আন্তর্জাতিক প্রোগ্রাম্যাটিক ও ডিমান্ড-সাইড প্ল্যাটফরম। এতে ডিজিটাল বিজ্ঞাপনী নেটওয়ার্কগুলো সংযুক্ত থাকে।

এসকিমির বিভিন্ন সেবার মাধ্যমে ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানগুলো তাদের ডিজিটাল বিজ্ঞাপনগুলো সুনির্দিষ্ট ভোক্তাদের কাছে পৌঁছাতে পারে।

এসকিমি ডিএসপি নামে পরিচিত এই মোবাইল মিডিয়া কোম্পানি ২০০২ সালে ইউরোপে যাত্রা শুরু করে। বাংলাদেশে এটির যাত্রা শুরু হয় ২০১৭ সালে।

লুতফি চৌধুরী তখন কান্ট্রি ম্যানেজার হিসেবে এসকিমি বাংলাদেশের সঙ্গে যাত্রা শুরু করেন। বাংলাদেশে এসকিমির দল এবং ব্যবসাকে তিনি সফলতার সঙ্গে সম্প্রসারিত করেন।

তিনি ২০১৮ সালে এসকিমি দক্ষিণ এশিয়ার আঞ্চলিক ব্যবস্থাপক হিসেবে নিযুক্ত হন। তিনি এই পদে বাংলাদেশ, নেপাল ও মিয়ানমারের দায়িত্বে ছিলেন।

বাংলাদেশ গত দুই বছর ধরে এসকিমি দক্ষিণ এশিয়ার ব্যবসার কেন্দ্রীয় ভূমিকায় ছিল। এটি সম্ভব হয়েছে এসকিমি বাংলাদেশের দক্ষ দলটির জন্যই।

এখন বাংলাদেশ থেকেই নির্দেশনা পাবে এসকিমি এশিয়ার অন্যান্য দেশের ডাটা, ডিজাইন, অপারেশনস, ফাইনান্সসহ অন্যান্য দলগুলো।

---------------------------------------------------------------------
আরও পড়ুন : জামালপুরের সেই ডিসি ওএসডি হচ্ছেন
---------------------------------------------------------------------

এই বিষয়ে এসকিমির প্রতিষ্ঠাতা এবং প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ভাইটাস পাউক্সতিস বলেন, প্রায় দুই বছর আগে লুতফি আমাদের বাংলাদেশ শাখার কান্ট্রি ম্যানেজার হিসেবে যোগদান করেন।

তিনি বলেন, লুতফি ইতোমধ্যে এসকিমিকে এটির প্রতিযোগীদের মধ্যে শীর্ষস্থানে নিয়ে যেতে সক্ষম হয়েছেন। তিনি আঞ্চলিক ব্যবস্থাপক হিসেবে এর ব্যবসাকে অন্যান্য দেশে সম্প্রসারণ করেন।

তিনি আরও বলেন, একটি ব্যবসাকে গড়ে তুলতে একজন ব্যক্তির মধ্যে যে দক্ষতাগুলো থাকা প্রয়োজন, সেগুলো আছে লুতফির।

এসকিমি বাংলাদেশের দলটি এখন থেকে নেপাল, মিয়ানমার, লাওস ও কম্বোডিয়াতে এসকিমির বাজার সম্প্রসারণের নেতৃত্ব দেবে।

কে

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়