logo
  • ঢাকা রবিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৯, ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

বাজেটে প্রতিবন্ধী ও কৃষকদের ভাতা নিয়ে গবেষকদের মত

মুক্তা মাহমুদ, আরটিভি
|  ১৫ জুন ২০১৯, ১৩:১৭ | আপডেট : ১৫ জুন ২০১৯, ১৩:৪৬
আগামী ২০১৯-২০ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে সামাজিক নিরাপত্তাখাতে বরাদ্দ বাড়ানো হলেও স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করা না গেলে সুফল পাওয়া যাবে না বলে মনে করেন অর্থনীতিবিদ ডক্টর সায়মা হক বিদিশা। আর কৃষিখাত সুরক্ষায় বাজেটে বিশেষ বরাদ্দ রাখার প্রস্তাব দিয়েছেন সিপিডির রিসার্চ ফেলো তৌফিক ইসলাম খান।   

সামাজিক নিরাপত্তার বলয় বাড়াতে বয়স্ক ভাতাভোগীদের সংখ্যা ৪০ থেকে বাড়িয়ে বাজেটে ৪৪ লাখ করার প্রস্তাব করা হয়েছে। বাড়ানো হয়েছে প্রতিবন্ধীভাতা ভোগীদের সংখ্যা এবং উপবৃত্তি। 

বাজেটে সামাজিক সুরক্ষায় ব্যয় ধরা হয়েছে, ২৯ হাজার ৭শ’ ৬৯ কোটি টাকা। তবে বরাদ্দের বেশিরভাগই পেনশন এবং স্কুল ভিত্তিক বলে মনে করেন এই অর্থনীতিবিদ। 

শিক্ষা খাতে বরাদ্দ প্রায় ১৭০০ কোটি টাকা বাড়িয়ে প্রস্তাবিত বাজেটে রাখা হয়েছে মোট ৪১ হাজার দুই শত দুই কোটি টাকা। যা মোট বাজেটের ১৫ দশমিক দুই শতাংশ। শিক্ষার গুনগত মান বাড়াতে এই অর্থ কিভাবে ব্যয় হবে তাই এখন প্রধান চ্যালেঞ্জ। 

প্রায় সোয়া ৫ লাখ কোটি টাকার বাজেটে কৃষিতে বরাদ্দ ২৮ হাজার ৩শ’ ৫৫ কোটি টাকা। ১৭ কোটি জনসংখ্যার কৃষি প্রধান দেশে, কৃষি গবেষণার জন্য বরাদ্দ রাখার পরামর্শ এই গবেষকের।  
সিপিডির রিসার্চ ফেলো তৌহিদুল ইসলাম খান বলেন, এককালীন একটা ক্ষতিপূরণের মতো অনুদান কৃষকদের যেন দেয়া হয়। ব্যাংকের মাধ্যমে দেয়া যেতে পারে। ৯ হাজার ১০০ কোটি টাকার মতো এই অর্থ দিলে কৃষকরা আরও অনুপ্রাণিত হবে। 

একদিকে কৃষক যেন শস্যের ন্যায্য দাম পায়, অন্যদিকে পণ্যমূল্য যেন ভোক্তার ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে থাকে তা নিশ্চিত করা নতুন অর্থ বছরের অন্যতম চ্যালেঞ্জ বলে মনে করেন বিশেষজ্ঞরা। 

জিএ/এসএস

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • বাংলাদেশ এর সর্বশেষ
  • বাংলাদেশ এর পাঠক প্রিয়