logo
  • ঢাকা বুধবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৯, ৭ কার্তিক ১৪২৬

ধর্ষণ ঠেকাতে মাদক ও পর্নোগ্রাফি বন্ধের সুপারিশ সংসদীয় কমিটির

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ২২ মে ২০১৯, ২০:৪৯
সম্প্রতি দেশে ধর্ষণের ঘটনা বেড়ে যাওয়ায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটি। এ জন্য পর্নোগ্রাফি ও মাদক বন্ধের সুপারিশ করেছে কমিটি।

আজ বুধবার সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত কমিটির তৃতীয় বৈঠকে এ সুপারিশ করা হয়।

এছাড়া বৈঠকে অনাকাঙ্ক্ষিত এসব ঘটনা দূর করতে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে আরও সজাগ থাকার সুপারিশ করা হয়েছে।

বৈঠক শেষে কমিটির সভাপতি মো. শামসুল হক টুকু বলেন, শুধু ধর্ষণ নয়, যে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে সজাগ থাকতে বলা হয়েছে। সরকারকে বিব্রত করে এমন কোনো ঘটনা যাতে না ঘটে সে বিষয়ে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য বলা হয়েছে। এ বিষয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানিয়েছেন, তারা সব সময় সজাগ। কোনো ঘটনা ঘটলে সঙ্গে সঙ্গে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

কমিটির সদস্য মো. ফরিদুল হক খান বলেন, বৈঠকে পর্নোগ্রাফি বন্ধের সুপারিশ করা হয়েছে। কমিটি মনে করে দেশে যে ধর্ষণ হচ্ছে এজন্য সামাজিক অবক্ষয় দায়ী। আর সামাজিক অবক্ষয়ের মূলে রয়েছে মাদক ও পর্নোগ্রাফি। এ দুটিই বন্ধের সুপারিশ করা হয়েছে।

সংসদ সচিবালয় জানায়, বৈঠকে আইন-শৃঙখলা বিঘ্নকারী যে কোনো সম্ভাব্য অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার তথ্য সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে যথাযথভাবে তদারকি, আসন্ন ঈদুল ফিতরকে সামনে রেখে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার, নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধ এবং পর্নোগ্রাফি বন্ধের বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা হয়েছে। কমিটি এসব যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণের পাশাপাশি মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের কার্যক্রম জোরদার, সব শ্রেণি-পেশার মানুষের মধ্যে ‘ডোপ টেস্ট’র বিস্তার এবং রেলওয়ে নিরাপত্তা ব্যবস্থা শক্তিশালীকরণে স্থানীয় জনগণকে সম্পৃক্ত করার সুপারিশ করা হয়েছে।

বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন কমিটির সদস্য স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান, মো. হাবিবর রহমান, পীর ফজলুর রহমান এবং নূর মোহাম্মদ। এছাড়া জননিরাপত্তা বিভাগের সচিব, সংশ্লিষ্ট অধিদফতরের মহাপরিচালক, পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এবং জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।

এমকে

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়