• ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০১৯, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

স্কয়ারের বিরুদ্ধে ভুল চিকিৎসার অভিযোগ আনলো ঢাবি শিক্ষার্থী

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ১৮ এপ্রিল ২০১৯, ২১:০৫ | আপডেট : ১৮ এপ্রিল ২০১৯, ২১:২৮
দিনে দিনে আমার বাম হাত ও পায়ের অবস্থার অবনতি হচ্ছে। বাম পায়ের কারণে খোঁড়াতে হলেও বাম হাত সম্পূর্ণই অকেজো হয়ে পড়ছে।  

whirpool
রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালের ডাক্তার কৃষ্ণা প্রভুর ভুল চিকিৎসার শিকার হয়ে এমন পরিণতি হয়েছে বলে অভিযোগ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) উইমেন অ্যান্ড জেন্ডার স্টাডিজের ছাত্র মেহেদী হাসান শামীমের। 

আজ বৃহস্পতিবার (১৮ এপ্রিল) দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে বিভিন্ন তথ্য-উপাত্ত তুলে ধরেন।

ঘটনার বর্ণনা দিয়ে শামীম বলেন, রক্তনালীর ব্রেন টিউমার (ইনসুলার ক্যাভারনোমা) হওয়ায় ২০১৮ সালের ১৪ অক্টোবর স্কয়ার হাসপাতালে ভর্তি হলে ডা. কৃষ্ণা প্রভু আমাকে দ্রুত অপারেশন করতে বলেন। না করলে স্ট্রোক করে যে কোনও সময় আমি মারা যেতে পারি। তিনি সহজেই এই অপরেশন করে দেবেন। কিন্তু ডাক্তারকে বারবার অপারেশনের পসিবল রিস্ক ও পোস্ট অপারেটিভ সিম্পটম সম্পর্কে জিজ্ঞেস করলেও উনি সবকিছু সচেতনভাবে এড়িয়ে যান। স্কয়ারের ব্যবসায়িক স্বার্থ হাসিল করাই ছিল ডাক্তারের মুখ্য উদ্দেশ্য।

২০১৯ সালের ২৩ জানুয়ারি ডাক্তারের পরামর্শে অপারেশন করা হয় উল্লেখ করে শামীম বলেন, আমি আইসিইউতে থাকাকালীন আমার অ্যাটেন্ডেন্টকেও (ছোট ভাই) শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে জানানো হয়নি। ২৫ তারিখ যখন আমি ওয়াশরুমে যেতে চাই তখন ডিউটি ডাক্তার আমার ভাইকে জানান, আমার বাম পাশ আর কাজ করছে না। পরবর্তীতে উন্নত চিকিৎসার জন্য ডাক্তারের কাছে অপারেশনের সিডি চাইলে ডাক্তার ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তালবাহনা শুরু করে।

আরসি/এসএস

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়