• ঢাকা বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবণ ১৪৩১
logo

বেনজীরের স্ত্রী-মেয়েও আসেননি দুদকে

আরটিভি নিউজ

  ২৪ জুন ২০২৪, ১৪:৫০
ফাইল ছবি

অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশের সাবেক মহাপরিদর্শক (আইজিপি) বেনজীর আহমেদের স্ত্রী ও দুই মেয়ের আজ সকাল ১০টায় দুদকের প্রধান কার্যালয়ে হাজির হওয়ার জন্য ডাকা হয়েছিল। কিন্তু বেলা ১টা পর্যন্ত দুদকে আসেননি বেনজীরের স্ত্রী জিসান মির্জা, দুই মেয়ে ফারহিন রিশতা বিনতে বেনজীর ও তাশিন রাইসা বিনতে বেনজীর।

সোমবার (২৪ জুন) সকাল ১০টায় সেগুনবাগিচায় দুদকের প্রধান কার্যালয়ে তাদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডাকা হয়েছিল।

দুদকের সচিব খোরশেদা ইয়াসমীন জানিয়েছেন, সোমবার বেনজীরের স্ত্রী ও কন্যাদের উপস্থিত হওয়ার জন্য অনুসন্ধানকারী টিম নোটিশ প্রদান করেছে। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে তারাও উপস্থিত হননি।

তিনি বলেন, তবে বেনজীর আহমেদ একটি লিখিত বক্তব্য দিয়েছেন গত বৃহস্পতিবার। সেই চিঠিতে তাদেরও অবস্থান জানিয়েছেন। বেনজীরের স্ত্রী ও কন্যারা এই তারিখ বর্ধিত করার জন্য আলাদা কোন আবেদন করেননি। দুদকের আইন অনুযায়ী পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও জানান তিনি।

এর আগের দিন রোববার (২৩) বেনজীর আহমেদকে দুদকে হাজির হওয়ার জন্য ডাকা হয়েছিল। তবে তিনিও দুদকে যাননি। বেনজীর আহমেদ রোববার দুদকে হাজির না হওয়ায় আইন অনুযায়ী পরবর্তী কার্যক্রম পরিচালনার কথা জানিয়েছে দুদক।

রোববার (২৩) দুদকের সচিব খোরশেদা ইয়াসমীন জানিয়েছিলেন, অভিযোগের বিষয়ে বেনজীর আহমেদের বক্তব্য প্রদানের জন্য রোববার দিন ধার্য ছিল। কিন্তু তিনি যথাসময়ে উপস্থিত হবেন কিনা সে বিষয়ে কমিশনকে কিছু জানাননি। রোববার অফিস সময়ের মধ্যে কমিশনে উপস্থিত হয়ে তিনি বক্তব্য না দিলে অনুসন্ধান টিম আইন অনুযায়ী পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। সোমবার তার স্ত্রী ও কন্যাদের উপস্থিত হওয়ার জন্য অনুসন্ধানকারী টিম নোটিশ প্রদান করেছে। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে তারাও উপস্থিত না হলে তাদের বিষয়েও আইন অনুযায়ী পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। গত ২১ জুন বেনজীর আহমেদ কমিশনে একটি চিঠি দেন। সেই চিঠিতে তিনি, তার স্ত্রী ও দুই মেয়ের নামে সম্পদের বিষয়ে অবস্থান বর্ণনা করেন। ওই চিঠিতে তিনি ও তার পরিবারের সদস্যদের জিজ্ঞাসাবাদের সময় চাওয়া হয়নি।

জানা গেছে, বেনজীর আহমেদ ৪ মে স্বপরিবারে দেশ ত্যাগ করেছেন। এর আগে তাকে ৬ জুন জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডাকা হয়েছিল। বিদেশে অবস্থান করায় তিনি ওইদিন দুদকে হাজিন হননি। পরে তিনি সময় চেয়ে আবেদন করলে তাকে ১৬ দিনের সময় দিয়ে রোববার ডাকা হয়েছিল।

বেনজীরের স্ত্রী জিসান মির্জা, দুই মেয়ে– ফারহিন রিশতা বিনতে বেনজীর ও তাশিন রাইসা বিনতে বেনজীরকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আগামী সোমবার ডাকা হয়। তারাও বেনজীরের সঙ্গে গত ৪ মে দেশ ত্যাগ করেছেন। বেনজীরের পরিবারের এই তিন সদস্যকে এর আগে ৯ জুন জিজ্ঞাসাদাদের জন্য ডাকা হয়েছিল। বিদেশে থাকায় তারাও নির্ধারিত তারিখে হাজির হতে পারেননি। পরে তারা সময় চেয়ে আবেদন জানালে তাদেরকে সোমবার ডাকা হয়েছে।

দুদকের অনুসন্ধানে এখন পর্যন্ত বেনজীর আহমেদ ও তার স্ত্রী-সন্তানদের নামে ঢাকায় মোট ১২টি ফ্ল্যাট, বিভিন্ন জেলায় ৬৯৭ বিঘা জমি, ১৯টি কোম্পানির শেয়ার এবং ৩০ লাখ টাকার সঞ্চয়পত্র, ৩৩টি ব্যাংক হিসাব ও ৩টি বিও হিসাব (শেয়ার ব্যবসার বেনিফিশিয়ারি ওনার্স অ্যাকাউন্ট) পাওয়া গেছে। এসব সম্পদ জব্দের আদেশ দিয়েছেন আদালত। আদালতের ওই আদেশ আসার আগেই গত ৪ মে বেনজীর আহমেদ দেশ ছাড়েন।

বেনজীর আহমেদ ২০২০ সালের ১৫ এপ্রিল থেকে ২০২২ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত আইজিপি ছিলেন। এর আগে তিনি ঢাকা মহানগর পুলিশ কমিশনার ও র‍্যাবের মহাপরিচালক হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন। মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগে ২০২১ সালের ডিসেম্বরে র‍্যাবের সাবেক ও বর্তমান সাত কর্মকর্তার ওপর নিষেধাজ্ঞা দেয় যুক্তরাষ্ট্র, যার মধ্যে বেনজীরের নামও ছিল।

মন্তব্য করুন

  • বাংলাদেশ এর পাঠক প্রিয়
আরও পড়ুন
ইমরান ও প্রাণিসম্পদের দুই কর্তাসহ ৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা 
ওই খাঁচার ভেতরে আজকে আমাদের ঢোকায়নি: ড. ইউনূস
ড. ইউনূসের বিরুদ্ধে সাক্ষ্যগ্রহণ পেছাল
হাজিরা দিতে আদালতে ড. ইউনূস