• ঢাকা শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১
logo

ভারতে গিয়ে নিখোঁজ, সবশেষ বিহারে ছিলেন এমপি আনার

আরটিভি নিউজ

  ২০ মে ২০২৪, ০২:০৯
ভারতে গিয়ে নিখোঁজ এমপি আনোয়ারুল আজিম আনার (সংগৃহীত ছবি)

ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য (এমপি) আনোয়ারুল আজিম আনার চিকিৎসার জন্য ভারতে গিয়ে নিখোঁজ হয়েছেন। নিখোঁজ আনারের ভারতীয় নম্বরের সর্বশেষ লোকেশন মুজাফফারাবাদে, অর্থাৎ বিহারের দিকে।

রোববার (১৯ মে) সন্ধ্যায় রাজধানীর মিন্টো রোডের ডিবি কার্যালয়ে সাংবাদিকদের এসব তথ্য জানান অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ।

তিনি বলেন, এমপি আনোয়ারুল আজিম আনার নিখোঁজের ঘটনায় ভারতীয় পুলিশের সঙ্গে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রাখছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। ভারতীয় পুলিশের দেওয়া তথ্যে মতে, নিখোঁজ আনারের ভারতীয় নম্বরের সর্বশেষ লোকেশন মুজাফফারাবাদে, অর্থাৎ বিহারের দিকে।

মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ বলেন, ঝিনাইদহ-৪ আসনের তিনবারের এমপি আনোয়ারুল আজিম আনার গত ১২ মে দর্শনার গেদে সীমান্ত দিয়ে কলকাতায় যান। কলকাতায় গোপাল নামে পরিচিত একজনের বাসায় ওঠেন। পরদিন ১৩ মে সকালে নাস্তা করে ওই বাসা থেকে বেরিয়ে যান। সেদিন সন্ধ্যায় কলকাতায় গোপালের বাসায় ফেরার কথা থাকলেও তিনি ফেরেননি।

তিনি বলেন, তখন থেকেই তার মেয়ে ও এপিএস তার মোবাইলে যোগাযোগ করেন। কিন্তু তারা যোগাযোগ করতে ব্যর্থ হন। এমপির মোবাইল থেকে হোয়াটসঅ্যাপে যে মেসেজগুলো আসছে... বলা হচ্ছে, তিনি দিল্লীতে আছেন, ওমুক-তমুকের সঙ্গে দেখা হবে। কিন্তু মেসেজগুলো এমপির পরিবার বিশ্বাস করছে না।

ডিবিপ্রধান বলেন, আমি বিষয়টি দুইদিন আগে জানতে পারি। ভারতীয় একজন ভদ্রলোক এমপিরও পরিচিত, তিনি আমাকে টেলিফোন করে তার (আনোয়ারুল আজিম আনার) বিষয়টি জানান। জানার পর ভারতীয় গোয়েন্দা সংস্থা এসটিএফের সঙ্গে যোগাযোগ করি। ভারতীয় পুলিশসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলেছি।

তিনি বলেন, এমপির একটি বাংলাদেশি ও আরেকটি ভারতীয় নম্বর ছিল। ১৬ মে সকাল ৭টার দিকে এমপির নম্বর থেকে দুটি ফোন আসে। একটি আসে এমপির এপিএসের নম্বরে, আরেকটি ফোন আসে ঝিনাইদহ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাইদুল করিম মিন্টুর নম্বরে। কিন্তু তখন দুজনের কেউই টেলিফোন ধরতে পারেননি।

তিনি বলেন, ভারতীয় পুলিশের সহযোগিতায় জানতে পেরেছি, সংসদ সদস্যের ভারতীয় নম্বরের লোকেশন মুজাফফারাবাদ, অর্থাৎ বিহারের দিকে। সবকিছু মিলিয়ে আমরাও খোঁজ-খবর রাখছি। তার মেয়ে এসেছেন আমাদের কাছে। তার নম্বরটি মাঝে মাঝে খুলছেন আবার মাঝে মাঝে বন্ধ করছেন। কারা কাজটি করছেন, তিনি কোনো ব্ল্যাকমেইলের শিকার হয়েছেন কি না... সবকিছুই গুরুত্ব দিয়ে দেখা হচ্ছে। প্রতিনিয়ত ভারতীয় পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ রাখা হচ্ছে। ভারতীয় পুলিশ যথেষ্ট সহযোগিতা করছে।

প্রসঙ্গত, গত ১২ মে সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিম আনার কানের চিকিৎসার জন্য ভারতের কলকাতায় যান।

মন্তব্য করুন

daraz
  • বাংলাদেশ এর পাঠক প্রিয়
আরও পড়ুন
ভারতে যাত্রীবাহী মিনিবাস খাদে পড়ে নিহত ১২
সিলেটে ১১ ট্রাক ভারতীয় চিনি জব্দ
বিমানভর্তি মরদেহ পৌঁছালো ভারতে
আখাউড়া স্থলবন্দরে ভারতগামী যাত্রীদের ভিড়