• ঢাকা বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
logo

আন্দোলনকারী ১২ শিক্ষার্থীর জামিন

আরটিভি নিউজ

  ১২ মে ২০২৪, ১৭:৫৬
শিক্ষার্থী
সংগৃহীত

যেসব শিক্ষার্থী সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা নিয়ে আন্দোলন করে গ্রেপ্তার হয়েছে তাদের অবশেষে জামিন মঞ্জুর করেছেন আদালত।

রোববার (১২ মে) ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মাহবুব আহমেদের আদালত প্রত্যেকের দুই হাজার টাকা মুচলেকা নিয়ে জামিন মঞ্জুর করেন। তারা চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা ৩৫ করার দাবিতে আন্দোলন করে আসছিল।

জামিন পাওয়া শিক্ষার্থীরা হলেন- শেখ ফরিদ, আল আমিন, হুমায়ুন কবির, রাসেল, মামুন রশীদ রতন, সাদ্দাম হোসেন, আব্দুল হাকিম, রিমা আক্তার, মানিক দাস, শারমিন আক্তার বৃষ্টি, আজম মোহাম্মদ।

তাদের বিরুদ্ধে অবৈধভাবে জনতাবদ্ধ হয়ে সড়ক অবরোধ, গাড়ি ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগ, সরকারি কাজে বাধা ও আত্মহত্যার হুমকিসহ ভয়ভীতি দেখানোর অভিযোগে শাহবাগ থানার এসআই এসএম এলিস মাহমুদ বাদী হয়ে মামলা করেন। মামলায় ১৪ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা ৪০০-৫০০ জনকে আসামি করা হয়।

আটকের পর আদালতে হাজির করে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পুলিশের উপপরিদর্শক আল আমিন আসামিদের কারাগারে আটক রাখতে আদালতের কাছে আবেদন করেন। অন্যদিকে আসামিপক্ষের আইনজীবীরা জামিন চেয়ে আবেদন করেন। শুনানি শেষে আদালত তাদের জামিন মঞ্জুর করেন।

এর আগে, আন্দোলনরতদের ওপর হামলার প্রতিবাদ, নারী শিক্ষার্থীসহ আটককৃতদের অবিলম্বে মুক্তি ও দ্রুত প্রজ্ঞাপনের দাবিতে শনিবার (১১ মে) রাতে এ গণ-অনশন কর্মসূচি ঘোষণা দেন তারা। এ সময় দাবি মেনে নিতে সরকারকে আল্টিমেটাম দেওয়া হয়।

আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা বলছেন, আটককৃতদের ছেড়ে দেওয়ার পাশাপাশি দাবি বাস্তবায়নে সরকারি সিদ্ধান্ত আসতে হবে। নতুবা ঢাকা রাজু ভাস্কর্যে গণ-অনশন কর্মসূচি, বিভাগীয় মানববন্ধন ও কর্মসূচি চলমান থাকবে। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত শিক্ষার্থীরা মাঠে অনড় অবস্থান করবে।

তাদের দাবি, আন্দোলনরত ১৩ শিক্ষার্থীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ ছাড়া দুজন জন শিক্ষার্থী গুরুতর অসুস্থ।

এর আগে, সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা ৩৫ বছর করার দাবিতে জাতীয় জাদুঘরের সামনে বিক্ষোভকারীদের বাধা দেয় পুলিশ। এতে ছত্রভঙ্গ হয়ে পড়েন আন্দোলনকারীরা। এ সময় কয়েকজন অবরোধকারীকে আটক করে পুলিশ।

শনিবার (১১ মে) বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে পুলিশি বাধা অতিক্রম করে শাহবাগ মোড় অবরোধ করেন শিক্ষার্থীরা। এতে শাহবাগ এলাকায় তীব্র যানজট সৃষ্টি হয়। পরে পুলিশ লাঠিচার্জ করে আন্দোলনরতদের সরিয়ে দেয়। এ সময় পুলিশ ও চাকরি প্রত্যাশীদের মধ্যে কয়েক দফা ধাওয়া-পাল্টাধাওয়ার ঘটনা ঘটে।

ঘটনার পরে শাহবাগ থেকে গিয়ে ফের রাজু ভাস্কর্যের সামনে গিয়ে অবস্থান নেন চাকরি প্রত্যাশীরা। পরে পুলিশ সেখান থেকে রিমা আক্তার, আজম মোহাম্মদ, মানিক দাস, হুমায়ুন কবির, শারমিন আক্তার, রাসেল আহমেদসহ কমপক্ষে ১০ থেকে ১২ জনকে আটক করা হয় বলে দাবি করা হয়েছে।

মন্তব্য করুন

daraz
  • বাংলাদেশ এর পাঠক প্রিয়
আরও পড়ুন
জবির ইমামকে অব্যাহতি, যা বললেন মসজিদে ঘুমানো সেই ছাত্রী
মাঝরাতে জবি মসজিদে ঘুমন্ত ছাত্রী, ইমামকে অব্যাহতি
পুকুরে ডুবে শিক্ষার্থীর মৃত্যু 
ক্লাস চলাকালীন স্কুলশিক্ষার্থীর মর্মান্তিক মৃত্যু
X
Fresh