logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ১৯ জানুয়ারি ২০২১, ৫ মাঘ ১৪২৭

বেগমগঞ্জে গৃহবধূ নির্যাতন ও ধর্ষণ চেষ্টার ঘটনায় স্বামীও জড়িত: হাইকোর্ট

আলোচিত নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে গৃহবধূকে বিবস্ত্র করে নির্যাতন ও ধর্ষণ চেষ্টায় গৃহবধূর স্বামী জড়িত বলে হাইকোর্টের নির্দেশে গঠিত তদন্ত কমিটির এক প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে।

এছাড়া স্থানীয় সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি), বেগমগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাসহ (ওসি) সংশ্লিষ্ট কেউই দায় এড়াতে পারেন না বলে উল্লেখ করা হয়েছে উক্ত প্রতিবেদনে।

আজ বৃহস্পতিবার (২৯ অক্টোবর) হাইকোর্টের নির্দেশে গঠিত তদন্ত কমিটি এ সংক্রান্ত তথ্যসংবলিত প্রতিবেদনটি দাখিল করেন। এ বিষয়ে শুনানির জন্যে আগামী ২৯ নভেম্বর দিন ধার্য করেছেন আদালত।

আইনজীবী আব্দুল্লাহ আল মামুন সাংবাদিকদের বলেন, নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে গৃহবধূকে বিবস্ত্র করে নির্যাতন ও ধর্ষণ চেষ্টার ঘটনায় প্রশাসনের অবহেলা পেয়েছেন হাইকোর্টের নির্দেশে গঠিত তিন সদস্যে বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, উক্ত ঘটনায় গৃহবধূর স্বামীর সম্পৃক্ততা ছিল। গেলো ১০-১২ বছর ধরে তার স্ত্রীর সঙ্গে কোনও যোগাযোগ ছিল না। কিন্তু তিনি ঘটনার প্রায় ৫-৬ দিন আগে থেকে নারীর সঙ্গে যোগাযোগ শুরু করেন। নারীকে শ্লীলতাহানি করার ঘটনায় স্থানীয় এএসপি, বেগমগঞ্জ থানার ওসি, স্থানীয় চেয়ারম্যান, মেম্বার ও চৌকিদারের অবহেলা রয়েছে বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গেলো ২ সেপ্টেম্বর নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে ওই গৃহবধূকে বিবস্ত্র করে নির্যাতন চালানো হয়। ঘটনার এক মাসেরও বেশি সময় পর গেলো ৪ অক্টোবর দুপুরে নির্যাতনের ভিডিও ফেসবুকে ভাইরাল হয়। এ ঘটনায় ওই দিন রাতেই দুটি মামলা হয়।  

আরও পড়ুন: 
নোয়াখালীতে গৃহবধূকে বিবস্ত্র করে নির্যাতনের ঘটনায় দুই মামলা
নোয়াখালীতে গৃহবধূ নির্যাতন: পর্নোগ্রাফি মামলায় গ্রেপ্তার আরও ২
বেগমগঞ্জে গৃহবধূ নির্যাতনের মামলা পিবিআইতে হস্তান্তর

আরএস/এম

RTV Drama
RTVPLUS