• ঢাকা বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৪ আশ্বিন ১৪২৫

চোখের জল ধুয়ে গেলো বৃষ্টিতে

স্পোর্টস ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ১৬ জুলাই ২০১৮, ১০:১৯ | আপডেট : ১৬ জুলাই ২০১৮, ১১:০৮
পরপর তিনটে নক আউট ম্যাচে পিছিয়ে পড়েও যেভাবে ফিরে এসে ফাইনালে উঠেছিলেন জ্লাতকো দালিচের শিষ্যরা, তেমন কিছুর একটা প্রত্যাশা ছিল। ১৮ মিনিটের মাথায় আত্মঘাতী গোলে পিছিয়ে পরা ক্রোয়েটরা দশ মিনিট পর ইভান পেরিসিচের গোলে ফিরে এসেছিলেন খেলায়। কিন্তু ৩৮ মিনিটে আতোঁয়া গ্রিজম্যানের পেনাল্টি গোলটাই স্পিরিটটা ভেঙে দেয় গোটা ক্রোয়েশিয়া দলকে। 

ম্যাচের ৫৯ মিনিটে পল পগবা, ৬৫ মিনিটে কিলিয়ান এমবাপের গোলটা ব্যবধান ৪-১ এ করে দেয়। ফ্রেঞ্চ গোলকিপার হুগো লরিসের ভুলে ক্রোয়েটরা দ্বিতীয় গোলটা করার পর একটা আশা জেগেছিল। তবে শেষ পর্যন্ত ৪-২ গোলে জিতে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হলো ফ্রান্স। 
--------------------------------------------------------
আরও পড়ুন  : এমবাপেকে ছুঁয়ে পুতিন বিরোধী ‘প্রতিবাদ’
--------------------------------------------------------

ম্যাচ হারের পর হতাশ ক্রোয়েশিয়ান কোচ দালিচ মাথায় হাত দিয়ে বসে পড়েন। তবে কিছুক্ষণ পর নিজেকে সামলে নিয়ে ফুটবলারদের পাশে ছুটে যান। তখন লুঝনিকি স্টেডিয়ামে অঝোরে বৃষ্টি শুরু হয়েছে। ভাগ্যিস বৃষ্টিটা এল, তা না হলে লড়াকু ক্রোয়েটদের চোখের পানিটা দেখা যেত। ক্রোয়েশিয়ার প্রেসিডেন্ট কোলিন্দা গ্রাবার কিতারোবিচও বেশ হতাশ হয়ে পড়েন।      

ফাইনালে হারলেও গোল্ডেন বল জিতে নেন ক্রোয়েশিয়ার অধিনায়ক লুকা মদ্রিচ। ঠিক আগেরবার ব্রাজিল বিশ্বকাপের ফাইনালে জার্মানির কাছে হারের পর যেমন মেসি জিতেছিলেন সেরা খেলোয়াড়ের এই পুরস্কার। 

লাল-সাদা শিবিরকে সম্মান দিতে ভুল করেননি নতুন চ্যাম্পিয়নরা। পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান শুরু হবার সঙ্গে সঙ্গে গার্ড অব অনার দিয়ে রাকিটিজ-মানজুকিচদের সম্মানিত করেন হুগো লরিসের নেতৃত্বাধীন দলটি।

ক্রোয়েট যোদ্ধারা যখন মন খারাপ করে ছিলেন ঠিক তখন দেশটির ফুটবল প্রেমীরা মেতেছিলেন বিশ্বকাপ জ্বরে। রার্নাস আপ হয়েছে দল এতে কি আসে যায়? জাতীয় দলের অসাধারণ পারফরমেন্সে মুগ্ধ দেশটির জনগণ। তাই তো ফাইনালে হারার পরও উৎসব হয়েছে দেশটির রাজধানী জাগরেবে।

আরও পড়ুন  : 

ওয়াই/এসএস

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়