• ঢাকা শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৭ আশ্বিন ১৪২৫

রিয়াদে মুগ্ধ মুশফিকের মিষ্টির দাওয়াত

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১৬:৫৯ | আপডেট : ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১৭:১১
ইনজুরির কারণে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে খেলতে পারছেন না নিয়মিত অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। তাই অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করছেন সহ-অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। চট্টগ্রামে সিরিজের প্রথম টেস্টে রিয়াদের নেতৃত্বে ড্র করে বাংলাদেশ। মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের অধিনায়কত্বে মুগ্ধ বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম।

মঙ্গলবার সংবাদ সম্মেলনে মুশফিকুর রহিম মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের অধিনায়কত্ব সম্পর্কে বলেন, রিয়াদ ভাইয়ের অধিনায়কত্ব আমার খুব ভালো লেগেছে। তার কিছু সিদ্ধান্ত অবশ্যই ভালো লাগার মতো। সবাই যদি খেয়াল করেন রিয়াদ ভাই ঘরোয়া লিগগুলোতে সবসময় ভালো করছে। তাছাড়া অধিনায়ক হিসাবেও তার পারফরম্যান্স ভালো। তিনি সামনে থেকে অসাধারণ নেতৃত্ব দেন।

তিনি আরও বলেন, রিয়াদ ভাই সবসময় আমাদের একটা বিশেষ বার্তা দিয়েছেন। তিনি আমাদের বলেছেন, সবসময় মনোযোগ দিয়ে খেলতে হবে। তার এই ম্যাসেজ আমাকে অনুপ্রাণিত করেছে। আমি মনে করি, শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে পুরো টিম তার অধিনায়কত্বে খেলার অপেক্ষা করছে।

চট্টগ্রামে টেস্টে দর্শকরা ‘অন্য’ মুশফিককে দেখতে পেয়েছে। কারণ তাকে সরিয়ে টেস্টে সাকিবকে অধিনায়ক করার পর মুশফিকের এটি ছিল প্রথম টেস্ট ম্যাচ। তাছাড়া এই ম্যাচে উইকেটরক্ষকের ভূমিকায়ও তিনি ছিলেন না। ম্যাচটিতে উইকেটরক্ষকের দায়িত্ব পালন করেছেন লিটন দাস।
--------------------------------------------------------
আরও পড়ুন: অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের সেরা একাদশে আফিফ
--------------------------------------------------------

ঢাকা টেস্টের আগে তাই স্বাভাবিকভাবেই তার কাছে জানতে চাওয়া হয় চট্টগ্রাম টেস্টে তার ফিল্ডিং কেমন লেগেছে। উত্তরে তিনি বলেন, কিপিং-ফিল্ডিং দুইটিই তিনি উপভোগ করেন।

মুশফিকুর রহিম বলেন, কিপিং বলেন ফিল্ডিং বলেন সবই আমি উপভোগ করি। কিন্তু কিপিং করলে অনেক কিছু জানা যায়। পিচের বিষয়ে জানা যায়। আমি ফিল্ডিং করলে উইকেটরক্ষকের সাথে যোগাযোগ রাখি। এতে বল কেমন আসছে, উইকেট কেমন, কেমন ব্যাট করতে হবে সে সম্পর্কে ধারণা তৈরি হয়।

লিটনকে নিয়ে মুশফিকুর রহিম বলেন, লিটন উইকেটরক্ষক হিসাবে খুব ভালো করছে। শুধু তাই নয়। ব্যাটিংয়েও সে ভালো করছে। মাঝে মাঝে সমস্যা হলেও তা কাটিয়ে উঠছে। আমি আশা করি সামনে আট বা দশ বছরে সে দলকে অনেক দূর নিযে যাবে।

সংবাদ সম্মেলনে স্লিপে ক্যাচ মিস নিয়ে মুশফিকের কাছে জানতে চাওয়া হয়। এ বিষয়ে তিনি বলেন, সত্যি বলতে আমারও দুই-তিনটি আঙুলে ফ্র্যাকচার আছে। স্লিপে ফিল্ডিং করাটা এমনিতেই কঠিন। আপনি দেখবেন যে, বিশ্ব ক্রিকেটে স্লিপেই বেশি ক্যাচ মিস হয়। আপনি যদি বিরাটকে দেখেন। সে কিন্তু বিশ্বের অন্যতম সেরা ক্রিকেটার। তার পরিসংখ্যান দেখলে বোঝা যায়। সেও শেষ কয়েকটা ম্যাচে স্লিপে ফিল্ডিং করেনি। কারণ তারও কিছুটা সমস্যা আছে। এটা আসলে সহজ নয়।

তিনি আরও বলেন, স্লিপের জন্য আমাদের জেনুইন ফিল্ডার নেই। কিন্তু দলে যারা আছে তাদের শিখতে হবে। আশা করি, আস্তে আস্তে এ সমস্যা দূর হয়ে যাবে।

সম্মেলনের শেষ পর্যায়ে হঠাৎ করে ছেলের নাম রাখা নিয়ে প্রশ্ন উঠতেই হেসে ওঠেন তিনি। মুশফিক তখন বলেন, ছেলের নাম এখনও ঠিক করিনি। আগামী সপ্তাহের মধ্যে আকিকা করব। তখনই নাম ঠিক করব। আপনাদের সবার জন্য মিষ্টি আছে। সময় করে খেতে আসবেন।

গত ৪ ফেব্রুয়ারি শেষ হয়েছে বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কার মধ্যকার দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজের প্রথম ম্যাচ। চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচটি ড্র হয়। আগামী ৮ ফেব্রুয়ারি মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে শুরু হবে সিরিজের দ্বিতীয় তথা শেষ ম্যাচ।

আরও পড়ুন: 

এএ

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়