• ঢাকা বুধবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১১ আশ্বিন ১৪২৫

প্রতারণা মামলায় শারাপোভার বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু

স্পোর্টস ডেস্ক
|  ২৩ নভেম্বর ২০১৭, ১২:০৭ | আপডেট : ২৩ নভেম্বর ২০১৭, ১২:১৩
ভারতে আবাসন দুর্নীতিতে জড়িয়ে পড়ার অভিযোগে করা মামলায় রাশিয়ান টেনিস গার্ল পাঁচবারের গ্র্যান্ডস্লাম চ্যাম্পিয়ন মারিয়া শারাপোভার বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করেছে ভারতীয় পুলিশ। মামলায় রাশান এ টেনিস সুন্দরীর বিরুদ্ধে জালিয়াতি ও অপরাধমূলক ষড়যন্ত্রের অভিযোগ দায়ের হয়েছে। 

প্রতারণা ও ষড়যন্ত্র করে গ্রাহকদের অর্থ হাতিয়ে নিয়ে লাপাত্তা হয়ে গেছে ভারতের একটি হাউজিং ফার্ম, যার পণ্যদূত ছিলেন পাঁচবারের গ্র্যান্ডস্লাম চ্যাম্পিয়ন। আর তাতেই ফেঁসে যান রুশ তারকা। ‘ব্যালে বাই মারিয়া শারাপোভা’ নামের প্রকল্পটি উদ্বোধন করতে ২০১২ সালে ভারতের নয়ডায় এসেছিলেন শারাপোভা। 

তিনি জানিয়েছিলেন, সেখানে একটি টেনিস একাডেমি, ক্লাবহাউস এবং হেলিপ্যাড থাকবে। এমনকী, প্রকল্পের ওয়েবসাইটে শারাপোভার উক্তিও প্রকাশ করা হয়েছিল নির্মাণকারী সংস্থা হোমস্টেড ইনফ্রাস্ট্রাকচার ডেভেলপমেন্টের তরফে। 

সেখানে তিনি বলেছিলেন, এই আবাসনের ক্রেতারা বিশেষ পরিষেবা পাবেন, তা নিশ্চিত। রাজধানী দিল্লির স্যাটেলাইট শহর গুরগাঁওয়ের এ প্রকল্প ২০১৬ সালের মধ্যে তৈরি হয়ে যাওয়ার প্রতিশ্রুতি দেয়া হয়েছিল। কিন্তু ক্রেতাদের কাছ থেকে কয়েক লাখ ডলার হাতিয়ে নেয়ার পরই এর কর্মীরা লাপাত্তা হয়ে যান। এমনই এক ক্রেতা আদালতে সংস্থা ও শারাপোভার বিরুদ্ধে মামলা করেন। এই মামলায় এখনো শারাপোভার কোনও প্রতিক্রিয়া মেলেনি।
 
তার তারকাখ্যাতি দেখেই প্রকল্পটিতে লাখ লাখ টাকা বিনিয়োগ করেন গ্রাহকরা। এ নিয়ে স্থানীয় পুলিশ কর্মকর্তা অরবিন্দ শর্মা বলেন, ‘আদালতের নির্দেশে আমরা একটি প্রতারণা মামলা দায়ের করেছি।’
 
তিনি জানান, মামলা হয়েছে হাউজিং ফার্মটির বিরুদ্ধে এবং অন্যতম আসামি শারাপোভা। মামলার বাদীপক্ষের এক আইনজীবী পীযূষ সিং বলেন, ‘একজন সেলিব্রেটি কোনো পণ্যের প্রচারের কাজ করলে কৌশলগতভাবেই তিনি তার প্রতিনিধি হয়ে পড়েন। শারাপোভার নাম যুক্ত না থাকলে হয়তো কেউই এখানে বিনিয়োগ করতেন না।’

ফোর্বসের সমীক্ষা বলছে, মেয়েদের টেনিসের সাবেক এক নম্বর শারাপোভা ২০১৫ সালে আয় করেন প্রায় ৩ কোটি ডলার, যার ২ কোটি ৩০ লাখ ডলারই এসেছে এনডোর্সমেন্ট খাত থেকে। 

এএ

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়