• ঢাকা বুধবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১১ আশ্বিন ১৪২৫

ড্রাইভিং লাইসেন্সের লিখিত পরীক্ষার প্রশ্ন ও উত্তর (পর্ব ৪)

লাইফস্টাইল ডেস্ক
|  ২০ মার্চ ২০১৮, ২১:০৫ | আপডেট : ২০ মার্চ ২০১৮, ২১:৩১
ড্রাইভিং লাইসেন্স করতে বিআরটিএ’র নিয়ম মেনে আবেদন করলেন। আবেদনের পরই পাবেন শিক্ষানবিস ড্রাইভিং লাইসেন্স। এটি পাওয়ার পর অংশ নিতে হয় দুই তিন মাসের প্রশিক্ষণ কার্যক্রমে। প্রশিক্ষণ শেষ করার পর প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে সকল লাইসেন্স প্রত্যাশীদেরকেই নির্ধারিত তারিখ ও সময়ে নির্ধারিত কেন্দ্রে লিখিত, মৌখিক ও ফিল্ড টেস্টে অংশ গ্রহণ করতে হয়। ড্রাইভিং লাইসেন্সের লিখিত পরীক্ষার প্রশ্ন ও উত্তর নিয়ে আরটিভি অনলাইনের ধারাবাহিক আয়োজনের চতুর্থ পর্ব আজ।

প্রশ্ন: ট্রাফিক সাইন বা রোড সাইন (চিহ্ন) প্রধানত কত প্রকার ও কী কী ?

উত্তর: ট্রাফিক সাইন বা চিহ্ন প্রধানত তিন প্রকার। 

ক. বাধ্যতামূলক, যা প্রধানত বৃত্তাকৃতির হয়,

খ. সতর্কতামূলক, যা প্রধানত ত্রিভুজাকৃতির হয় এবং

গ. তথ্যমূলক, যা প্রধানত আয়তক্ষেত্রাকার হয়। 

প্রশ্ন: লাল বৃত্তাকার সাইন কী নির্দেশনা প্রদর্শন করে?

উত্তর: নিষেধ বা করা যাবে না বা অবশ্যবর্জনীয় নির্দেশনা প্রদর্শন করে।
--------------------------------------------------------
আরও পড়ুন: ড্রাইভিং লাইসেন্সের লিখিত পরীক্ষার প্রশ্ন ও উত্তর (পর্ব ২)
--------------------------------------------------------

প্রশ্ন: নীল বৃত্তাকার সাইন কী নির্দেশনা প্রদর্শন করে?

উত্তর: করতে হবে বা অবশ্যপালনীয় নির্দেশনা প্রদর্শন করে।

প্রশ্ন: লাল ত্রিভুজাকৃতির সাইন কী নিদের্শনা প্রদর্শন করে?

উত্তর: সতর্ক হওয়ার নির্দেশনা প্রদর্শন করে।

প্রশ্ন: নীল রঙের আয়তক্ষেত্র কোন ধরনের সাইন?

উত্তর: সাধারণ তথ্যমূলক সাইন।

প্রশ্ন: সবুজ রঙের আয়তক্ষেত্র কোন ধরনের সাইন?

উত্তর: পথনির্দেশক তথ্যমূলক সাইন, যা জাতীয় মহাসড়কে ব্যবহৃত হয়।

প্রশ্ন: কালো বর্ডারের সাদা রঙের আয়তক্ষেত্র কোন ধরনের সাইন?

উত্তর: এটিও পথনির্দেশক তথ্যমূলক সাইন, যা মহাসড়ক ব্যতীত অন্যান্য সড়কে ব্যবহৃত হয়।

প্রশ্ন: ট্রাফিক সিগন্যাল বা সংকেত কত প্রকার ও কী কী?

উত্তর: ৩ (তিন) প্রকার। যেমন- ক. বাহুর সংকেত, খ. আলোর সংকেত ও গ. শব্দ সংকেত।

প্রশ্ন: ট্রাফিক লাইট সিগন্যালের চক্র বা অনুক্রমগুলি কী কী?

উত্তর: লাল-সবুজ-হলুদ এবং পুনরায় লাল।

প্রশ্ন: লাল, সবুজ ও হলুদ বাতি কী নির্দেশনা প্রদশন করে?

উত্তর: লালবাতি জ্বললে গাড়িকে ‘থামুন লাইন’ এর পেছনে থামিয়ে অপেক্ষা করতে হবে, সবুজবাতি জ্বললে গাড়ি নিয়ে অগ্রসর হওয়া যাবে এবং হলুদবাতি জ্বললে গাড়িকে থামানোর জন্য প্রস্তুতি নিতে হবে।

আরও পড়ুন :

কেএইচ/জেএইচ

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়