• ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৫ আশ্বিন ১৪২৫

বুলবুল আহমেদের অষ্টম মৃত্যুবার্ষিকী আজ

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ১৫ জুলাই ২০১৮, ১৫:১৮
ছবি সংগৃহীত
ঢাকাই চলচ্চিত্রের ‘মহানায়ক’ খ্যাত জনপ্রিয় অভিনয়শিল্পী বুলবুল আহমেদের অষ্টম মৃত্যুবার্ষিকী আজ। ২০১০ সালের আজকের এই দিনে না ফেরার দেশে পাড়ি জমান তিনি। ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে মেধাবী ও মার্জিত একজন মানুষ হিসেবেই পরিচিত ছিলেন তিনি।

সাবলীল অভিনয়ের জন্য অল্প সময়ের মধ্যেই দর্শকের মনে জায়গা করে নেন বুলবুল আহমেদ। ‘বরফ গলা নদী’ নাটকে অভিনয়ের মাধ্যমে অভিনয়ে পথচলা শুরু তার। নাটকটি পরিচালনা করেন আবদুল্লাহ আল-মামুন।

১৯৬৪ সালে নাটকটি বাংলাদেশ টেলিভিশনে প্রচারিত হয়। বুলবুল আহমেদ অভিনীত উল্লেখযোগ্য টিভি নাটকগুলো হচ্ছে- মালঞ্চ, ইডিয়েট, মাল্যদান, বড় দিদি, আরেক ফাল্গুন।

ধারাবাহিক ও খণ্ড নাটক মিলিয়ে প্রায় চার শতাধিক নাটকে অভিনয় করেছেন তিনি। সবশেষ ২০০৯ সালে ‘বাবার বাড়ি’ নামে একটি নাটকে অভিনয় করেন তিনি।

১৯৭৩ সালে আবদুল্লাহ ইউসুফ ইমামের (ইউসুফ জহির) ‘ইয়ে করে বিয়ে’র মাধ্যমে চলচ্চিত্রে অভিষেক তার। পরের বছর আবদুল্লাহ আল-মামুনের ‘অঙ্গীকার’ ছবিতে অভিনয় করেন এই নায়ক। শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের ‘রাজলক্ষ্মী শ্রীকান্ত’ ও ‘দেবদাস’ ছবি দুটি তাকে খ্যাতি এনে দেয়।

বুলবুল আহমেদ অভিনীত ছবির মধ্যে অন্যতম মহানায়ক, সীমানা পেরিয়ে, ধীরে বহে মেঘনা, জীবন নিয়ে জুয়া, রূপালী সৈকত, জন্ম থেকে জ্বলছি। পাশাপাশি ওয়াদা, মহানায়ক, ভালো মানুষ, রাজলক্ষ্মী শ্রীকান্ত, আকর্ষণ, গরম হাওয়া, কত যে আপন ছবিগুলো পরিচালনা করেন তিনি।

বুলবুল আহমেদের জন্ম ১৯৪১ সালে পুরান ঢাকায়। তার আসল নাম তাবারক আহমেদ। আদর করে তার বাবা-মা বুলবুল বলে ডাকতেন। দাম্পত্য জীবনে বুলবুল আহমেদের স্ত্রী অভিনেত্রী ডেইজি আহমেদ। তাদের ঘরে তিন সন্তান। তারা হলেন মেয়ে ঐন্দ্রিলা, তিলোত্তমা এবং ছেলে শুভ।

এম/পিআর

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়