• ঢাকা শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৭ আশ্বিন ১৪২৫

প্রতিপক্ষ সেই ভুটান

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ০৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১০:০৭ | আপডেট : ০৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১০:৩৮
ভুটানের কোচ ত্রেভর মরগ্যান ও অধিনায়ক বিরাজ মহারাজের সঙ্গে বাংলাদেশের কোচ জেমি ডে ও ডিফেন্ডার নাসির উদ্দিন চৌধুরী।
১৯৯৩ সালে প্রথমবারের মতো পাকিস্তানের লাহোরে দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলো নিয়ে সার্ক গোল্ডকাপের যাত্রা শুরু। সেবার বাংলাদেশ অংশ নেইনি। দুই বছর বিরতির পর দ্বিতীয় আসর বসে শ্রীলঙ্কায়। দ্বীপ রাষ্ট্রটির রাজধানী কলম্বোতে হওয়া ওই আসরে প্রথমবারের মতো অংশ নিয়েই সেমিফাইনালে পৌঁছায় লাল-সবুজরা। তবে ভারতের কাছে হেরে বিদায় নিতে হয়। 

১৯৯৭ সালে নেপালে অনুষ্ঠিত তৃতীয় আসর থেকে টুর্নামেন্টের নাম পরিবর্তন করে করা হয় ‘সাউথ এশিয়ান ফুটবল ফেডারেশন (সাফ)’ গোল্ডকাপ। হিমালয়ের পাদদেশে প্রথম পর্ব থেকেই বিদায় নেয় বাংলাদেশ। 

দুই বছর পর ভারতের গোয়ায় অনুষ্ঠিত হয় এই টুর্নামেন্টের চতুর্থ আসর। প্রথমবারের মতো ফাইনালে উঠেছিল বাংলাদেশ দল। তবে স্বাগতিকদের কাছে ২-০ গোলে হার নিয়ে দেশে ফিরতে হয়েছিল। 

২০০৩ সালে প্রথমবারের মতো আয়োজক হয় বাংলাদেশ। আর এবারেই বাজিমাত। গ্যালারিতে থাকা দর্শকদের ভালোবাসায় সিক্ত হয়ে আর মাঠে নিজেদের সেরা ফুটবল উপহার দিয়ে জিতে নেয় অধরা সেই শিরোপা।

ফাইনালে মালদ্বীপকে টাইব্রেকারে পরাজিত করে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে স্বাগতিকরা। পরের আসর ২০০৫ হয় অনুষ্ঠিত হয় পাকিস্তানের করাচিতে। সেবার লাল-সবুজরা ফাইনাল খেললেও শিরোপা বঞ্চিত হয়। এর পর মোট পাঁচ আসরে গ্রুপ পর্বেই বাদ পড়ছে হয়েছে বাংলাদেশকে। ২০০৯ সালে নিজেদের মাঠেও হতাশ করেছে বাংলাদেশ। যদিও সেবার সেমিতে উঠতে সক্ষম হয়। 

ফের বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে ফিরেছে দক্ষিণ এশিয়ার ফুটবলের সবচেয়ে বড় আসর। সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের ১২তম আসর আজ মঙ্গলবার থেকে শুরু হচ্ছে। দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে ভুটানের বিপক্ষে মুখোমুখি জবে জামাল-মামুনুলরা।

এবারের প্রেক্ষাপট কিছুটা হলেও ভিন্ন। গত মাসেই এশিয়ান গেমসে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স করে প্রথমবারের মতো দ্বিতীয় রাউন্ডে পা রাখতে সক্ষম হয়েছিল নতুন কোচ জেমি ডে’র শিষ্যরা।

দুইবার কাতার, দক্ষিণ কোরিয়া ও ইন্দোনেশিয়ায় অনুশীলন করেছে দল। ফিটনেস ও পারফরম্যান্স নিয়ে আশাবাদী দলের ইংলিশ কোচও। 

১৯৮৪ সাল থেকে ২০১৬ সাল পর্যন্ত ভুটানের বিপক্ষে মোট ৮ বার লড়েছে বাংলাদেশ দল। লাল-সবুজদের জয় ৬টিতে। ড্র ১টিতে। ভুটানিজরা জেতে ১টি ম্যাচে। ২০১৬ সালের ১০ অক্টোবর এশিয়া কাপের প্রাক-বাছাই পর্বের ম্যাচে নিজেদের মাঠে বাংলাদেশকে ৩-১ গোলে হারায় ভুটান। 

ওই হারের পর আন্তর্জাতিক ফুটবল থেকে ১৭ মাস নির্বাসনে চলে যায় বাংলাদেশ। ওই হারের ২৩ মাস পর ফের ভুটানের বিপক্ষে নামতে প্রস্তুত বাংলাদেশ দল। 

যদিও এই ম্যাচকে প্রতিশোধ মানতে নারাজ জাতীয় দলের সিনিয়র সদস্য নাসির উদ্দিন চৌধুরী। তিনি বলেন, আমরা কেবল ভুটানের ম্যাচকে টার্গেট করে খেলব না। শুধু তাদের নিয়ে চিন্তা করতে চাচ্ছি না। আমরা পুরো টুর্নামেন্টকে টার্গেট করে খেলব। অতীতে কী হয়েছে সেটা নিয়ে ভাবতে চাই না। ভালো খেলা উপহার দিতে চাই।

আরও পড়ুন  :

ওয়াই/জেএইচ

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়