• ঢাকা বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৪ আশ্বিন ১৪২৫

লানজিনির পরিবর্তে দলে ঢুকলেন পেরেজ

স্পোর্টস ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ০৯ জুন ২০১৮, ১৯:৫৮
৩২ বছর ধরে শিরোপার বাইরে দুইবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনা। ২০১৪ সালে শিরোপার কাছে গিয়েও কাছ ঘেঁষে আসতে হয় লিওনেল মেসিদের। চোখের সামনেই সোনালী ট্রফিটি উঁচু করে ধরে উল্লাসে মাতে জার্মানি। এর আগে ১৯৯০ সালে আর্জেন্টিনাকে কাঁদিয়ে ছিল জার্মানি। যদিও তখন বর্তমান জার্মানিকে ডাকা হতো পশ্চিম জার্মানি।

এবারের বিশ্বকাপে সেই অধরা শিরোপা ছোয়ার মিশনে নামবে আলবেসিলেস্তেরা। কিন্তু তার আগেই একে একে ধাক্কা খাচ্ছে তারা। ২৩ সদস্যের দল ঘোষণার একদিন পরই প্রথম ধাক্কা খায় আর্জেন্টিনা। আগের বিশ্বকাপের সেরা গোলরক্ষক সার্জিও রোমেরো। তার পরিবর্তে আরেক গোলরক্ষককে দলে নেয়া হয়। এরপর ইনজুরিতে পড়েন আর্জেন্টিনার মিডফিল্ডার ম্যানুয়েল লানজিনি। তার ইনজুরিতে পড়ার পর কে দলে ঢুকবে তা নিয়ে ছিল আলোচনা। অবশেষে সব আলোচনা সরিয়ে দলে সুযোগ পেলেন রিভার প্লেটের এনজো পেরেজ। 

আগের দিন দলের সাথে অনুশীলন করার সময় বড় ধরণের চোটের মুখে পড়েন লানজিনি। পরীক্ষা করে জানা যায়, পায়ের অগ্রভাগের অস্থিসন্ধি মারাত্মকভাবে ছিঁড়ে গিয়েছে ওয়েস্টহ্যামের এই মিডফিল্ডারের। 

গত মৌসুমে স্প্যানিশ ক্লাব ভ্যালেন্সিয়া ছেড়ে আর্জেন্টাইন ক্লাব রিভার প্লেটে যোগ দেন ৩২ বছর বয়সী মিডফিল্ডার এনেজা পেরেজ। তবে আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপের দল থেকে বাদ পড়ায় পরিবার নিয়ে ছুটিতে ছিলেন পেরেজ। তবে হঠাৎ ডাক পাওয়ায় সেখান থেকে দলের সাথে যোগ দিতে একেবারে রাশিয়ার জন্য ব্যাগপ্যাক গুছাচ্ছেন পেরেজ।

পেরেজ দলে ডাক পেলেও বিশ্বকাপের মূল ২৩ সদস্যর দল থেকে বাদ পড়া ইকার্দি, পারেদেস, পিজারো আর পেরোত্তিরাও ছিলেন লানজিনির সম্ভাব্য রিপ্লেসমেন্ট হিসেবে। তবে অভিজ্ঞতার বিচারে শেষ পর্যন্ত পেরেজকেই দলে টানলেন সাম্পাওলি। ২০০৯ সালে অভিষিক্ত হওয়ার পর এখন অব্দি আকাশি-সাদা জার্সি ২১ ম্যাচ মাঠে নেমেছেন এই সেন্ট্রাল মিডফিল্ডার।

এএ

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়