• ঢাকা শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৭ আশ্বিন ১৪২৫

শর্ত দিয়ে রাশিয়ার অলিম্পিকস নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার

স্পোর্টস ডেস্ক
|  ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১৬:৫২ | আপডেট : ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১৭:০৫
রাশিয়ার ওপর থেকে অলিম্পিকস নিষেধাজ্ঞা তোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছে আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটি (আইওসি)। তবে শর্ত দেয়া হয়েছে, দক্ষিণ কোরিয়ার পিয়ংচ্যাংয়ে চলতি শীতকালীন অলিম্পিকসে আর কোনো রুশ অ্যাথলেটের শরীরে নিষিদ্ধ বলবর্ধক পাওয়া গেলে সিদ্ধান্ত বদলানো হবে।

এ ছাড়া নিষেধাজ্ঞা পিয়ংচ্যাং অলিম্পিকস শেষ না হওয়া পর্যন্ত বলবত থাকবে। অর্থাৎ আজ রোববার অলিম্পিকসের সমাপনী প্যারেডেও রুশ অ্যাথলেটরা রাশিয়ার পতাকা বহন করতে পারবে না।

বিবিসি বাংলার জানায়, রাশিয়ার সোচিতে ২০১৪ সালের শীতকালীন অলিম্পিকসে সরকারি মদতে রুশ অ্যাথলেটদের বিরুদ্ধে দেদারসে নিষিদ্ধ মাদক ব্যবহারের অভিযোগ তদন্তে প্রমাণিত হবার পর গেলো ডিসেম্বরে আইওসি রাশিয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছিল।

তবে তদন্তে যেসব রুশ অ্যাথলেটের বিরুদ্ধে সোচিতে মাদক ব্যবহারের কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি তেমন ১৬৮ জন পিয়ংচ্যাংয়ে অংশ নিয়েছেন। দুটি সোনাসহ ১৬টি পদক তারা জিতেছেন।

পিয়ংচ্যাং অলিম্পিকসে দুইজন রুশ অ্যাথলেটের শরীরে নিষিদ্ধ মাদক পাবার পর প্রশ্ন দেখা দিয়েছিল রাশিয়ার ওপর আদৌ নিষেধাজ্ঞা উঠবে কিনা।

তবে অলিম্পিক কমিটির প্রেসিডেন্ট টমাস বাক বলেছেন, পিয়ংচ্যাংয়েও দুইজন রুশ অ্যাথলেটের বিরুদ্ধে মাদক ব্যবহারে প্রমাণ পাওয়া গেলেও এর পেছনে রুশ অলিম্পিক কমিটির কোনো ভূমিকা থাকার প্রমাণ পাওয়া যায়নি।

তবে এ ঘটনায় পিয়ংচ্যাংয়ের সমাপনী অনুষ্ঠানেও রাশিয়ার পতাকা বহনের ওপর নিষেধাজ্ঞা বলবৎ রাখা হয়েছে।

গ্রিগরি রডচেনকভ নামের রুশ অলিম্পিক কমিটির একজন চিকিৎসক  ফাঁস করে দেন সোচিতে ২০১৪ সালের শীতকালীন অলিম্পিকসে সরকারের মদতে নিয়ম করে রুশ অ্যাথলেটদের ব্যাপক মাত্রায় নিষিদ্ধ বলবর্ধক করতে দেয়া হয়েছিল।

রডচেনকভ, যিনি সোচি অলিম্পিকসের সময় রাশিয়ার ডোপিং পরীক্ষার ল্যাবরেটরির দায়িত্বে ছিলেন, অভিযোগ করেছিলেন ওপর মহলের নির্দেশে তিনি রুশ অ্যাথলেটদের মূত্রের বহু নমুনা বদলে দিয়েছিলেন। তিনি বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রে পালিয়ে রয়েছেন।

এই অভিযোগের পর ডোপিং বিরোধী আন্তর্জাতিক সংস্থার একটি তদন্ত রিপোর্টে বলা হয়, ২০১২ সাল থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত রাশিয়ায় সরকারি মদতে এই ডোপিং কারসাজির ফলে তাদের এক হাজার অ্যাথলেট বেআইনি সুবিধা পেয়েছে। এরপর ডিসেম্বর রুশ অলিম্পিক কমিটিকে নিষিদ্ধ করা হয়।

তবে শনিবার নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত ঘোষণার সময় আইওসির সিনিয়র কর্মকর্তা নিকোল হোভার্তজ বলেন, এই ঘটনাকে পেছনে রেখে আমাদের সামনে এগুতে হবে।

আরও পড়ুন: 

ওয়াই/পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়