• ঢাকা রবিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৮ আশ্বিন ১৪২৫

নিজের জায়গা থেকে সেরাটা দিতে চান সাব্বির

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ১৩ জানুয়ারি ২০১৮, ২০:৫৪ | আপডেট : ১৩ জানুয়ারি ২০১৮, ২১:৩৫
শাস্তি পাওয়ার পর এই প্রথম মিডিয়ার সামনে এলেন সাব্বির রহমান। মিরপুরের ইনডোরে শনিবার বেলা তিনটায় শুরু করেছিলেন ব্যাটিং অনুশীলন। শেষ করতে করতে পাঁচটা। ক্রিকেটে তার পরিশ্রম কিংবা আত্মনিবেদনে ঘাটতি নেই। সাব্বির বারবার অভিযুক্ত হচ্ছেন শৃঙ্খলাভঙ্গের ঘটনায়। 

গেল কয়েক বছর ধরে মাঠের পারফরম্যান্সের চেয়ে মাঠের বাইরের কাণ্ডে বেশি আলোচিত সাব্বির রহমান। বিপিএলের দুই আসরেই জরিমানা গুনেছেন তিনি। সবশেষ জাতীয় ক্রিকেট লিগের শেষ রাউন্ডে রাজশাহীতে জাতীয় লিগের শেষ রাউন্ডে এক কিশোর দর্শককে মারধর, ম্যাচ অফিশিয়ালদের সঙ্গে অশোভন আচরণ ও ম্যাচ চলার সময় নিয়মবহির্ভূত মুঠোফোন ব্যবহার করায় সাব্বির মোটা অঙ্কের জরিমানা গোনার পাশাপাশি বিসিবির কেন্দ্রীয় চুক্তি থেকে বাদ পড়েছেন। ঘরোয়া ক্রিকেটে নিষিদ্ধ হয়েছেন ছয় মাস।

--------------------------------------------------------
আরও পড়ুন: আল আমিন বৈধ, সঙ্গে সতর্কবার্তা
--------------------------------------------------------

এতো জরিমানা, নিষেধাজ্ঞা ও শাস্তির পর সাব্বির রহমান ভেতরে ঠিক কতোটা পরিবর্তন হয়েছেন? সাব্বির বলেন, এ রকম কোনো পরিবর্তন আসে নাই! মানুষ হিসেবে বাইরের এসব ঘটনা আমার উপর অনেক প্রভাব ফেলেছে। তবে যদি প্রফেশনাল খেলোয়াড় হিসেবে চিন্তা করি, তাহলে পাস্ট ইজ পাস্ট! যা হওয়ার হয়ে গেছে। এটার প্রভাব যাতে খেলায় না পড়ে। সেটা নিয়ে চিন্তা করছি। চিন্তা করছি ন্যাশনাল টিমকে আমার জায়গা থেকে সেরাটা দিতে। কারণ আমি বাংলাদেশের পতাকা বহন করছি। চেষ্টা করছি ভালো কিছু করার জন্য।

ব্যাটিংয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অসাধারণ কোনো কীর্তি না থাকলেও শৃঙ্খলাভঙ্গে একটি রেকর্ড আছে সাব্বিরের। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে প্রথম ‘ডিমেরিট পয়েন্ট’ পাওয়া ক্রিকেটার তিনিই। নামের পাশে তিন ডিমেরিট পয়েন্ট পাওয়া সাব্বির এ বছরের অক্টোবরের মধ্যে আরেক পয়েন্ট পেলেই নিষিদ্ধ হতে পারেন নির্দিষ্টসংখ্যক ম্যাচে। সে বিষয়টি মাথায় আছে কিনা জানতে চাইলে সাব্বির বলেন, না। আসলে মাথায় নেতিবাচক কিছু ঘটতেছে না। ডিমেরিট পয়েন্ট নিয়ে ভাবনা নাই। এক পয়েন্ট বা ১০ পয়েন্ট, সমস্যা নাই। চেষ্টা করছি এই সিরিজটা ভালো খেলার জন্য।

তবে শুধু ছন্দে ফিরেই তিনি ক্ষ্যান্ত থাকবেন না। ব্যাট হাতে স্বরুপে ফেরার আভাসও দিয়ে রাখলেন, হ্যাঁ, অবশ্যই। সাব্বির আগ্রাসী থাকবে। সব সময়।

একদিনের সীমিত ওভারের ফরম্যাটে সাব্বির হতে পারেন বাংলাদেশের ব্যাটিংয়ের এক কার্যকর অস্ত্র; কিন্তু সময়ের প্রবাহমানতায় সেই তেজোদ্দীপ্ত উইলোবাজিও কেমন যেন ফ্যাকাসে। ২০১৭ সালের ২৫ মার্চ ডাম্বুলায় শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে হাফ সেঞ্চুরির (৫৬ বলে ৫৪) পর শেষ ১২ ম্যাচে পঞ্চাশের ঘরে পা রেখেছেন মাত্র একবার। ২৪মে ডাবলিনে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ফিফটিই (৮৩ বলে ৬৫) শেষ।

তার আগে ও পরের ইনিংসগুলোয় রান খরায় ভুগছেন সাব্বির। টানা সেই সময়ের স্কোরগুলোর দিকে তাকালেই সে সত্যতা ফুটে উঠবে। গত বছর ২৫ মার্চ ডাম্বুলায় লঙ্কানদের সাথে হাফ সেঞ্চুরির পর থেকেই শুরু শনির দশা। শ্রীলঙ্কা (০), আয়ারল্যান্ড (০) ও নিউজিল্যান্ডের (১) সঙ্গে পরের তিন ম্যাচে করেছেন মোটে ১।

পরের দুই ম্যাচে (৩৫+৬৫) মনে হচ্ছিল আবার নিজেকে ফিরে পেয়েছেন; কিন্তু এরপর আবার সেই তিমিরে পড়ে থাকা। শেষ সাত ইনিংসে কোন ফিফটি নেই। ২৪+৮+৮+১৯+১৯+১৭+৩৯ = মোট রান ১৩৮।

আরও পড়ুন

এএ

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়