• ঢাকা মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১০ আশ্বিন ১৪২৫

‘আরাফাতের ময়দানে যা কষ্ট পেয়েছি বলার মতো নয়’ (ভিডিও)

হানিছ সরকার উজ্জল- জেদ্দা প্রতিনিধি
|  ৩০ আগস্ট ২০১৮, ১৬:০৮ | আপডেট : ৩০ আগস্ট ২০১৮, ১৬:৪৫
অস্থায়ী তাঁবুতে বাংলাদেশি হাজিরা

চলতি বছর হজযাত্রীদের ভালো সেবার প্রতিশ্রুতি দেয়া হলেও বিগত বছরগুলোর মতো এবারও ভোগান্তির শিকার হয়েছেন তারা। আর এজন্য হাজিরা দায় চাপিয়েছেন এজেন্সিগুলোর ওপর। তবে অভিযোগ তদন্তের ভিত্তিতে এই এজেন্সিগুলোর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিয়েছে সংশ্লিষ্টরা।

গেল কয়েক বছরের ধারাবাহিকতায় এবারও বাড়ি ভাড়াসহ নানা ক্ষেত্রে ভোগান্তির শিকার হয়েছেন হাজিরা। এবার শুধু মিনায় অব্যবস্থাপনাই নয় এর সঙ্গে যুক্ত হয়েছে মক্কা ও মদিনার আবাসনের স্বল্পতা।

একজন হাজি বলেন, আরাফাতের ময়দানে যা কষ্ট পেয়েছি তা বলার মতো নয়। আরেকজন হাজি বলেন, মোয়াল্লেমদের সমস্যা, মিনায় আসার পর তাঁবুর সমস্যা, তারা সিট সংখ্যা কম দিয়েছে।

আরেকজন হাজি অভিযোগ করে বলেন, মুজদালিফায় তার ফুফু হারিয়ে গেছেন। তিনি বলেন, তাকে আমরা খোঁজার চেষ্টা করি। কিন্তু আমাদের এজেন্সি তাকে খোঁজার কোনও চেষ্টাও করেনি।

এ প্রসঙ্গে হাবের একজন কর্মকর্তা বলেন, আমরা মোনাজ্জেমদের সঙ্গে কথা বলে তাদের লোকেশন জেনে হারানো হজযাত্রীদের সেখানে প্রেরণ করছি।

এদিকে হাজিদের এমন অভিযোগের প্রেক্ষিতে ধর্মমন্ত্রী মতিউর রহমান বলেন, তদন্তের ভিত্তিতে এসব এজেন্সিগুলোর বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। একই কথা বলছেন সৌদি আরবে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত গোলাম মসীহ। তিনি বলেন, যারা অব্যবস্থাপনা ও দুর্নীতি করেছে এবং হাজি ভাইদের যে কষ্ট দিয়েছে, তাদের বিরুদ্ধে আমরা উপযুক্ত ব্যবস্থা নেব।

এরইমধ্যে সোমবার থেকে ফিরতি হজ ফ্লাইট শুরু হয়েছে, যা শেষ হবে ২৭ সেপ্টেম্বর। কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, এখন পর্যন্ত প্রায় সাড়ে নয় হাজার হজযাত্রী বাংলাদেশে ফিরে এসেছেন।

সৌদি আরবে বিমানের কান্ট্রি ম্যানেজার বলেন, সম্মানিত হজযাত্রী ভাইয়েরা সুষ্ঠুভাবেই দেশে ফিরতে পারছেন। ফ্লাইট নির্দিষ্ট সময়েই ছাড়ছে। তবে দু-একটা ফ্লাইট ছাড়তে কিছুটা দেরি হয়েছে।

তবে সবকিছু ঠিক থাকলে ২৬ সেপ্টেম্বরের মধ্যেই বাংলাদেশে ফিরে আসবে প্রায় সোয়া লাখ হাজি।

আরও পড়ুন :

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়