• ঢাকা বৃহস্পতিবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৮, ৩ কার্তিক ১৪২৫

সু চি সরকারের সমালোচনায় মিয়ানমারে ৩ সাংবাদিক গ্রেপ্তার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
|  ১১ অক্টোবর ২০১৮, ১৫:০২ | আপডেট : ১১ অক্টোবর ২০১৮, ১৫:২৭
ছবি: সংগৃহীত

মিয়ানমারের নেত্রী অং সান সু চির খুবই ঘনিষ্ঠ ব্যক্তি ফিয়ো মিন থেইন পরিচালিত একটি  প্রকল্পের তহবিল সংক্রান্ত আর্টিকেল প্রকাশ করায় একটি পত্রিকার তিন তিন সাংবাদিককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

এই ব্যবস্থাপনা তত্ত্বাবধানের দায়িত্বে ছিলেন দেশটির নেত্রী অং সান সু চির খুবই ঘনিষ্ঠ ব্যক্তি ফিয়ো মিন থেইন। তার সমালোচনা করায় এই তিন সাংবাদিককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে আল জাজিরা।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন দেশটির ‘ইলেভেন মিডিয়া’র নির্বাহী সম্পাদক কিয়াও জাও লিন ও নায়ি মিন এবং প্রধান প্রতিবেদন ফিয়ো ওয়াই উইন।

গত বুধবার এই তিন সাংবাদিকের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগের শুনানির জন্য তাদেরকে ইয়াংগুনের একটি আদালতে হাজির করা হয়। শুনানি শেষে তাদেরকে কারাগারে পাঠানো হয়। পরবর্তী শুনানি হবে ১৭ অক্টোবর।

আসামি পক্ষের আইনজীবী কিই মিয়ন্ট এএফপি নিউজ এজেন্সিকে বলেন, গত সোমবার প্রকাশিত ফিয়ো মিন থেইন পরিচালিত শহরের বাস নেটওয়ার্ক প্রকল্পের তহবিল সংক্রান্ত একটি আর্টিকেলের জন্য এই মামলা দায়ের করা হয়েছে। তিনজনকেই ইনসেইন কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

যদিও আদালত জনগণের মধ্যে ভয় বা আতঙ্ক ছড়াতে এই আর্টিকেল প্রকাশ করা হয়েছে বলে রুল জারি করে, তবে তিনজনকেই জরিমানা এবং দুই বা তার চেয়ে বেশি বছরের কারাদণ্ড হতে পারে। এর আগেও ইলেভেন মিডিয়া গ্রুপকে টার্গেট করেছে মিয়ানমার কর্তৃপক্ষ।

২০১৬ সালের নভেম্বরে পত্রিকাটির তখনকার সম্পাদকদের কারাদণ্ড দেয়া হয় একটি কলাম প্রকাশের জন্য। এতে একজন ব্যবসায়ীর কাছে থেকে একজন সরকারি কর্মকর্তা এক লাখ ডলারের একটি ঘড়ি নিয়েছে বলে অভিযোগ করা হয়।

ইয়াংগুন কর্তৃপক্ষ এএফপি’কে বলেন, আমরা সাম্প্রতিক অভিযোগগুলো সম্পর্কে এই মুহূর্তে কিছু বলতে পারবো না।

এর আগে গত বছরের ডিসেম্বরে মিয়ানমারে রয়টার্সের সাংবাদিক ওয়া লোন এবং কিওয়া সো উকে  গ্রেপ্তার করে পুলিশ। রাখাইনে রোহিঙ্গা মুসলিমদের বিরুদ্ধে দেশটির সেনাবাহিনীর নির্যাতনের ঘটনার অনুসন্ধান করতে গিয়ে রাষ্ট্রীয় গোপন নথি সংগ্রহের অভিযোগে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

তারা মিয়ানমারের নাগরিক। গত ২ সেপ্টেম্বর তাদের প্রত্যেককে ৭ বছরের কারাদণ্ড দেয়া হয়।

আরও পড়ুন : 

কে/এসআর

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়