• ঢাকা বৃহস্পতিবার, ১৬ আগস্ট ২০১৮, ১ ভাদ্র ১৪২৫

ভারতের সর্বকনিষ্ঠ লেখক চার বছরের শিশু আয়ান!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
|  ১৩ জুন ২০১৮, ১৫:৩২ | আপডেট : ১৩ জুন ২০১৮, ১৬:০০
যে বয়সে খেলাধুলায় ব্যস্ত থাকার কথা সে বয়সেই কিনা বই লিখে ফেললো ভারতের আসামের এক শিশু। হ্যাঁ, বিস্ময়কর হলেও এমন কাণ্ডই ঘটিয়েছেন আয়ান গগৈ গোহাই নামের চার বছরের এই শিশু। অথচ তৃতীয় জন্মদিনের পর কথাই বলতে পারতো না আয়ান। আর পুরো একটি বই লিখেই ভারতের সর্বকনিষ্ঠ লেখকের মর্যাদা পেয়েছে আয়ান। দ্য হিন্দু, পিটিআই, এনডিটিভির।

বার্তা সংস্থা পিটিআই বলছে, আয়ান ভারতের আসাম রাজ্যের উত্তর লখিমপুর জেলায় বসবাস করে। সম্প্রতি সে ভারতের সর্বকনিষ্ঠ লেখকের মর্যাদা পেয়েছে। গেলো মাসে দ্য ইন্ডিয়া বুক অব রেকর্ডস আয়ানকে এই মর্যাদা দেয়।

তবে মজার বিষয় হচ্ছে, আয়ান কিন্তু একটা শব্দও লিখেনি। বরং আয়ানের মায়ের মোবাইল ফোনে ডাউনলোড করা একটি অ্যাপ ব্যবহার করে সে তার দৈনিক অভিজ্ঞতা রেকর্ড করেছে। আর ওই অডিও ক্লিপ তার দাদীর সঙ্গে হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করে শেয়ার করেছে।

এনডিটিভির খবরে বলা হয়েছে, আয়ানের লেখা বইয়ের নাম ‘হানিকম্ব’। উত্তর লখিমপুর জেলার সেইন্ট মেরি স্কুলে পড়াশোনা করে আয়ান। আর গেলো জানুয়ারিতেই আয়ানের বইটি প্রকাশিত হয়েছে। বইয়ের দাম রাখা হয়েছে ২৫০ রুপি। এতে ৩০টি ছোট ছোট অধ্যায় আছে। সেখানে আয়ানের আঁকা ছবি ব্যবহার করা হয়েছে।

সঙ্গীতা গগৈ গোহাই বলেন, আয়ান এক বছর বয়স থেকে আঁকাআঁকি শুরু করে। কিন্তু তিন বছর হওয়ার আগ পর্যন্ত সে কথা বলতে পারতো না। আমরা ভেবেছিলাম সে মৌখিক-প্রতিবন্ধী। কিন্তু একদিন আমাদের অবাক করে দিয়ে সে শুদ্ধ বাক্যে কথা বলা শুরু করে।

উল্লেখ্য, আয়ানের জন্ম ২০১৩ সালের আগস্ট মাসে। তার দাদার নাম পূর্ণকান্ত গগৈ। তিনি একজন অবসরপ্রাপ্ত ব্যাংক কর্মকর্তা। নাতির কাছে তিনি শ্রেষ্ঠ বন্ধু ও নায়ক।

এ/পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়