• ঢাকা মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১০ আশ্বিন ১৪২৫

যৌথ সামরিক মহড়ায় ভারত-পাকিস্তান!

আরটিভি অনলাইন ডেস্ক
|  ২৭ এপ্রিল ২০১৮, ২২:২৭ | আপডেট : ২৭ এপ্রিল ২০১৮, ২২:৩৬
ফাইল ছবি
জন্মের পর থেকে সাপে-নেউলে সম্পর্ক প্রতিবেশী দেশ ভারত-পাকিস্তানের। এরমধ্যে চার দফায় যুদ্ধও বাঁধিয়েছে তারা। আর চুন থেকে পান খসলেই একে অপরকে দোষ দেয়া তো আছেই। কিন্তু অতীত ভুলে দক্ষিণ এশিয়ার পারমাণবিক শক্তিধর দেশ দুটি একটি যৌথ সামরিক মহড়ায় অংশ নিতে যাচ্ছে।

সাংহাই কোঅপারেশন অর্গানাইজেশনের (এসসিও) ব্যানারে চলতি বছরের আগস্টে রাশিয়ায় প্রথমবারের মতো সামরিক মহড়ায় অংশ নেবে দেশ দুটি। যদি এমনটা ঘটে তাহলে এটি হবে ১৯৪৭ সালে দেশভাগের পর উভয় দেশের অংশগ্রহণে প্রথম সেনা মহড়া।

সরাসরি পাকিস্তানের নাম উল্লেখ না করে ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী নির্মলা সীতারমন বলেন, এসসিও-র অধিকাংশ দেশগুলোর সঙ্গে দারুণ সম্পর্ক ভারতের। প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রে বন্ধু দেশগুলোর সঙ্গে সম্পর্ক মজবুত করতে চাই আমরা।

সামরিক মহড়ায় এই প্রথমবার অংশ নিতে চলেছে দক্ষিণ এশিয়ার পরমাণু শক্তিধর রাষ্ট্রগুলো। গতবছরই এসসিও-তে পূর্ণ সময়ের সদস্য হয়েছে পাকিস্তান ও ভারত। এই সামরিক মহড়ায় অংশ নেবে চীন ও রাশিয়া। সেনা মহড়ায় যোগ দেয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে পাকিস্তানও।

--------------------------------------------------------
আরও পড়ুন : নাইজেরিয়ায় বোকো হারামের হামলায় নিহত ৯
--------------------------------------------------------

দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ড. মোহাম্মদ ফয়সাল বলেছেন, এসসিও-র ব্যানারে এই যৌথ সামরিক মহড়া অনুষ্ঠিত হবে। আমি এ বিষয়ে পরে বিস্তারিত জানাবো।

জানা গেছে, সন্ত্রাসী হামলা ও সন্ত্রাসী গোষ্ঠীকে দুর্বল করে দেয়ার লক্ষ্যে এই যৌথ সামরিক মহড়া অনুষ্ঠিত হবে। এজন্য এই যৌথ সামরিক মহড়াকে ‘পিস মিশন ২০১৮’ হিসেবে নামকরণ করা হয়েছে। আগস্টের শেষ ও সেপ্টেম্বরের শুরুতে রাশিয়ার উড়াল পর্বতমালায় এই যৌথ সামরিক মহড়া অনুষ্ঠিত হবে।

এদিকে ভারত-পাকিস্তানের সম্পর্ক বিবেচনায় এ ধরনের খবরকে খুব গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে। একইসঙ্গে এই যৌথ মহড়ায় চীনও অংশ নেবে। সেক্ষেত্রে চীনের সঙ্গে ভারতের সম্পর্কের বরফও গলতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন : 

এ/পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়