• ঢাকা শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৬ আশ্বিন ১৪২৫

‘বুঝলাম, আমাকে নায়করাজ রাজ্জাক হতে হবে’

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ২৩ জানুয়ারি ২০১৮, ১৭:০৪ | আপডেট : ২৩ জানুয়ারি ২০১৮, ১৭:০৯
ছবি: অনুষ্ঠান মঞ্চে আলোচক ও অতিথিরা।
‘সিনেমা ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই রাজ্জাক হতে সব সময় চেষ্টা করেছি, আজও করছি। ছোটবেলায় উত্তম কুমার, দিলীপ কুমারের ছবি দেখতাম। তখনই নায়ক হতে ইচ্ছে করত। কিন্তু চলচ্চিত্রে এসে বুঝলাম আমাকে নায়করাজ রাজ্জাক হতে হবে। নায়ক বলতে একজনই ছিলেন, তিনি রাজ্জাক।’- এভাবেই বললেন জনপ্রিয় নায়ক, পরিচালক-প্রযোজক আলমগীর।

তিনি বলেন, ‘আমার জন্মভূমি’ ছবির মাধ্যমে ১৯৭২ সালে প্রথম সিনেমায় কাজ করি। ওই ছবিতে ছিলেন রাজ্জাক ও কবরী। সেই থেকে তাকে চিনি। আমরা যখন নতুন ছিলাম, তখন তিনি আমাদের কাজ করার সুযোগ করে দিয়েছেন। ভালোবাসা দিয়ে শাসন করেছেন, আবার প্রয়োজন মতো সোহাগ করেছেন। শিখিয়েছেন চলচ্চিত্র কর্মী হতে।
--------------------------------------------------------
আরও পড়ুন: জয়াকে ‘রংবাজ’র নায়িকা হতে বলেছিলেন রাজ্জাক
--------------------------------------------------------

আলমগীর আরো বলেন, ‘১৯৭২ থেকে ১৯৯০ সাল পর্যন্ত রাজ্জাক ভাইয়ের এমন কোনো জন্মদিন ছিল না, যেখানে আমি উপস্থিত ছিলাম না। কিন্তু এরপর তা আর পারিনি। কারণ এই ২৩ জানুয়ারিতে আমার মা মারা যান। আমার মায়ের মৃত্যুর খবর পেয়েছিলাম রাজ্জাক ভাইয়ের কাছ থেকে।’

চিত্রনায়ক রাজ্জাকের জন্মদিন উপলক্ষে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতি আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করে। রাজধানীর বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন করপোরেশনের (বিএফডিসি) সাউন্ড কমপ্লেক্সের ফজলুল হক মিলনায়তনে আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সৈয়দ হাসান ইমাম, কবরী, আবদুল লতিফ বাচ্চু, আজিজুর রহমান, ছটকু আহমেদ, মুশফিকুর রহমান গুলজার, বদিউল আলম খোকন প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে চিত্রনায়িকা কবরী বলেন, ‘আমাদের মধ্যে রসায়ন ভালো থাকলেও কাজের বিষয়ে আমাদের এক ধরনের হিংসা কাজ করত। তবে এই হিংসা ছিল পজেটিভ। আমরা একে অপরের সঙ্গে যে হিংসাটা ছিল, সেটি কে কার চেয়ে ভালো কাজ করতে পারে সেই হিংসা। যা দিয়ে আমরা নিজেকে ভালো অভিনয়শিল্পী বানানোর চেষ্টা করেছি।’

চিত্রনায়ক রাজ্জাক গত বছরের ২১ আগস্ট শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুর পর এবারই প্রথম তার জন্মদিন পালিত হচ্ছে।

আরও পড়ুন:

পিআর/এম

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়